মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর ২০২০, ০৫:৫৯ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
জুবায়েরপন্থীদের সন্ত্রাসী কার্যক্রম নিষিদ্ধের দাবী জানালেন হক্কানী উলামায়ে কেরাম মাদ্রাসাদস্যুদের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলনের লিখিত বক্তব্য দেওবন্দের নতুন মুহতামিম মাওলানা মুহাম্মাদ ক্বারী উসমান মানসুরপুরী ১৫ অক্টোবর থেকে খুলছে দারুল উলুম দেওবন্দসহ উত্তরপ্রদেশের মাদরাসাগুলো পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হামলায় মাওলানা ড. আদিল খান  শহীদ হয়েছেন তাবলীগ ইস্যুতে দেওবন্দের খেলাফ যে কাজ হয়েছে বাংলাদেশে তাবলীগ নিয়ে অপপ্রচারে তীব্র ভর্ৎসনা ভারতীয় শীর্ষ আদালতের তাবলিগ মামলায় মোদী সরকারের সমালোচনায় সুপ্রিম কোর্ট মসজিদ আল হারামের শিক্ষক শায়খ মুহাম্মাদ বিন আলী আর নেই চলে গেলেন হৃদয়রাজ্যের আরেক বাদশা
বেফাকের পেইজ থেকে আল্লামা শফীর নামে প্রচারিত নির্দেশনাটি বানোয়াট (অনুসন্ধানী রিপোর্ট)

বেফাকের পেইজ থেকে আল্লামা শফীর নামে প্রচারিত নির্দেশনাটি বানোয়াট (অনুসন্ধানী রিপোর্ট)

তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম | গত দৈনিক প্রথম আলো সহ জাতীয় গনমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়া হাইয়্যাতুল উলিয়ার পক্ষে  আল্লামা আহমদ শফীর একটি “জরুরী  এলান” প্রকাশিত হয়।  এলানটি সর্ব প্রথম বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়ার অফিসিয়াল পেইজে ৩ নভেম্বর বিকাল ৩টায় প্রকাশ করা হয়।

টঙ্গী মাঠে সংগঠিত তাবলীগের বিবাদমান পরিস্থিতি নিয়ে হেফাজতের আমির আল্লামা শফীর নামে একটি বিজ্ঞপ্তি ঘুরে বেড়াচ্ছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। কওমী মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড আল হাইয়াতুল উলয়ার অফিসিয়াল প্যাডের কপি ব্যাবহার করে আল্লামা শফীর স্বাক্ষর জাল করে মুনাফিকরা  তৃতীয়শক্তি   এটি প্রচার করেছিল। যেখানে লেখা আছে,

আল্লামা শাহ আহমদ শফী [দা.বা.] এর নির্দেশক্রমে জানানো যাচ্ছে যে, প্রতিটি জেলা উপজেলায় ওলামায়ে কেরাম এবং তাবলীগী সাথী ও মুরুব্বীদের সাথে পরামর্শ করে টঙ্গী মাঠে সা’দ পন্থীদের হামলায় নিহত আহতদের পক্ষে ইঞ্জিনিয়ার ওয়াসিফুল ইসলাম, নাসিম,  মাও. মোশাররফ, মাওঃ আশরাফ আলী, আঃ রশিদ চাঁদপুর গংদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করতে হবে। এছাড়া স্থানীয়ভাবে সামর্থ অনুযায়ী বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করতে হবে।

বি.দ্র. পরামর্শক্রমে একজন বাদী হয়ে উকিলের মাধ্যমে মামলা করবেন।

 

পাবলিক ভয়েস টিমের অনুসন্ধান আজ বিষয়টি ভুয়া, হিসাবে নিশ্চিত হওয়া গেছে।  দেখা গেছে এই নির্দেশনাটি সঠিক নয় এমনকি এ ব্যাপারে আল্লামা শফী এবং হাইয়াতুল উলয়ার অফিসও কিছু জানে না।

 

সত্যতা জানার জন্য প্রথমে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয় হাইয়াতুল উলয়ার অফিসে। কিন্তু তাদের অফিসে মেইল করে, ফোন করে কোন সাড়া না পাওয়ায় যোগাযোগ করা হয় আল্লামা শফী পুত্র মাও. আনাসের সাথে। তিনি খোজ নিয়ে জানাচ্ছেন বলার পর পুনরায় ফোন করা হয় আল্লামা শফীর খাদেম মাও. শফীর কাছে। মাও. শফী বলেন, “এমন কিছু আমার জানা নেই। আমি এখন ছুটিতে আছি”

 

কিছুক্ষণ পর রাত আটটার দিকে মাও. আনাস মাদানী পাবলিক ভয়েস অফিসে ফোন করে সত্যতা জানিয়ে বলেন, এমন কোন নির্দেশনা আল্লামা শফী এবং হাইয়াতুল উলয়ার পক্ষ থেকে যায়নি। হাইয়াতুল উলয়ার দফতর সম্পাদকের সাথে কথা বলেছেন বলেও তিনি জানান। সাথে সাথে তিনি বলেন, তাবলীগের এই ঘটনায় আমরা দুঃখ প্রকাশ করছি এবং এর পরিপ্রেক্ষিতে কি করা যায় তা পরামর্শ করছি কিন্তু এমন কোন নির্দেশনা আমাদের পক্ষ থেকে যায়নি তাই এটা প্রচার করা থেকে সবাইকে বিরত থাকার আহবান করছি।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com