রবিবার, ১১ অগাস্ট ২০১৯, ০৯:২৫ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আবারও জামাত-হেফাজতের যৌথ মিছিলে কাশ্মীরের ছবি জালিয়াতি ঈদের ছুটিতে মুবাল্লীগদের করণীয় ও কিছু কথা জয়পুরহাটে অ্যাসিড খাওয়ানোর মামলায় ইমামসহ ২ জন রিমান্ডে সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলামের নিন্দা ও প্রতিবাদ মসজিদের ভিতর শীর্ষ আলেমদের উপর হামলায় দেশজুড়ে নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় আল্লামা মুফতি ইজহারের উপর হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেপ্তার করুনঃ ১০১ আলেমের বিবৃতি মসজিদের ভিতরে মুফতি ইজহারের উপর নৃশংস হামলা: আহত ৩ মুফতি উসামা ! ক্ষমা করে দিবেন… বিদেশী মেহমানদের এসিড খাইয়ে হত্যা চেষ্টায় দেশব্যাপি তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জয়পুরহাটে ইন্ডিয়ার জামাতকে এসিড খাইয়ে হত্যা চেষ্টাঃ ইমামসহ ৭ জন গ্রেপ্তার
ঢাকা জেলা ইজতেমার প্রস্তুতি প্রায় শেষ: সকারকারি অনুমতির অপেক্ষায় লাখ লাখ মুসল্লি

ঢাকা জেলা ইজতেমার প্রস্তুতি প্রায় শেষ: সকারকারি অনুমতির অপেক্ষায় লাখ লাখ মুসল্লি

বিশেষ প্রতিনিধি: আগামি ২৬,২৭ ও ২৮ অক্টোবর রোজ শুক্র, শনি ও রবিবার ঢাকা জেলার ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে। ইজতেমার প্রস্তুতি প্রায় শেষ তবে সরকারি অনুমতির অপেক্ষায় লাখ লাখ মুসল্লিরা শেষ সময় পার করছেন । তারা মনে করছেন ইজতেমার সব কাজ সম্পন্ন তাই আগামি শুক্রবার থেকেই যথা নিয়মে ইজতিমা হবে। তাবলিগের মূল ধারার এই ইজতেমার আয়োজকরা জানিয়েছেন হাজারের অধিক জামাত ইজতেমা থেকে বের হবে।

ইতোমধ্যে জেলা ইজতেমা উপলক্ষে এখন থেকেই বিভিন্ন জোড় ও বিশেষ পরামর্শ সহ নানান কার্যক্রম শুরু হয়ে গেছে। বিশেষ মেহনতের জামাত প্রতিদিন বের হচ্ছে। ইজতেমাকে ঘিরে বিভিন্ন তবকা (স্তরের) জোড় ও গাশত চলছে। প্রসাশন, সাংবাদিক, ব্যাবসায়ী, ছাত্র, শিক্ষক, শ্রমিক, পেশাজিবী, গোরাব সহ সকল স্তরের লোকদের কাছে দাওয়াত চলছে।

ইজতেমায় মুসল্লীদের জনসমাগমেরর চেয়ে আল্লাহর রাস্তায় বাহির হওয়াকে প্রধান্য দেয়া হয়েছে। প্রত্যেক জেলা ইজতেমার পূর্বেই নিদৃষ্ট পরিমান (শতাধিক) জামাত বের করতে হবে।

জেলা ইজতেমা বাস্তবায়নের জন্য জিম্মাদার সাথীদের নিয়ে  বড়রা বিশেষ মোজাকারা করেছেন। তাবলিগী সাথিরা জানিয়েছেন, দিনে ঘর ঘর ব্যক্তি থেকে ব্যক্তি দাওয়াতের মেহনত, আর রাতে লম্বা নামাজ ও জায়নামাজে বসে রোনাজারি করার প্রতি জোর দিয়েছেন। দিনে বান্দাকে আল্লাহর দিকে ডাকা আর রাতে আল্লাহকে বান্দার দিকে ডাকা। ইজতেমা কোন সমাবেশের নাম নয়, মেহনত করতে করতে কিছু লোক একত্র হবে, আবার কিছু লোক মেহনতের জন্য এখান থেকে বের হবে। ইজতেমার মূল মাকসাদ বান্দাদের আল্লাহর সাথে সম্পর্ক তৈরি করে দেয়া। তার আগে ইজতেমার আযোজক ও কর্মিদের আল্লাহর সাথে সম্পর্ক ও তায়াল্লুক মা’আল্লা ঠিক করতে হবে, বলে বার বার মোজাকারা করা হচ্ছে। তাই প্রথমে আমাদেরকে সেদিকে মনোযোগী হওয়া প্রযোজন। সম্পর্ক ঠিক হয়ে গেলে পেরেশানী ছাড়া ইজতেমার ইন্তেজাম হয়ে যাবে। আল্লাহর খাজানা পক্ষে চলে আসবে। আসমান থেকে গায়বী মদদ নামতে শুরু করবে।

 

Facebook Comment





© All rights reserved © 2019 Tablignewsbd.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com
error: Content is protected !!