বুধবার, ০৩ Jun ২০২০, ১০:১২ পূর্বাহ্ন

পাকিস্তানে নিজামুদ্দীন অনুসরণের আম ঘোষনা

পাকিস্তানে নিজামুদ্দীন অনুসরণের আম ঘোষনা

১০ ডিসেম্বর ২০১৮ রোজ সোমবার

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম। বর্তমান পরিস্থিতি স্পষ্ট করার জন্য মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্ডের পূর্বের রীতি অনুযায়ী, পাকিস্তানের মারকাজ মসজিদ মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্ডের বুজুর্গ ও উলামায়ে কেরামের খাদেম মুফতি আবদুল মুঈদ হাফিযাহুল্লাহর জবানে পাকিস্তানের সকল তাবলীগপ্রিয় মানুষের উদ্দেশ্যে একটি গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করা যাচ্ছে। এই ঘোষণাটি প্রত্যেক নতুন ও পুরাতন সাথী মনোযোগ দিয়ে শুনি এবং দ্রুত প্রত্যেক নতুন ও পুরাতন সাথীদের কাছে পৌঁছে দেই। জাযাকুমুল্লাহ খাইরান।

রাইবেন্ডের বুজুর্গ মুফতি আবদুল মুঈদ হাফিযাহুল্লাহর ঘোষণা

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম। ‘মারকাজি মসজিদ মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্ড’ এর ব্যপারে পাকিস্তানের সকল নতুন ও পুরাতন তাবলীগের সাথীদের জন্য স্পষ্ট ভাষায় এই এলান করা যাচ্ছে যে, আজ থেকে প্রায় ৭০ বছর পূর্বে কিছু মুখলিস মেওয়াতী বুজুর্গ, হজরত হাজী আবদুল ওয়াহাব রাহিমাহুল্লাহ ও তাঁর সাথীগণ দিল্লির তাবলীগী মারকাজ ‘বাংলাওয়ালী মসজিদ নিজামুদ্দিন’ এর জেলা শাখা হিসেবে পাকিস্তানের মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্ডের ভিত্তি স্থাপন করেছিলেন। আর যুগযুগ ধরে রাইবেন্ড মারকাজের পুরা কাজ নিজামুদ্দিন মারকাজের অধীনে ও পরামর্শের মাধ্যমেই চলে আসছে।

তারপর আস্তে আস্তে এই ধারণা প্রতিষ্ঠিত হতে লাগল যে মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্ড মারকাজ নিজেই স্বয়ংসম্পূর্ণ তাবলীগের আলমী মারকাজ, নিজামুদ্দিন মারকাজের অধীন নয় এবং নিজামুদ্দিন মারকাজের শাখাও নয়। যে কারনে পাকিস্তান ও অন্যান্য দেশগুলোর মধ্যে অত্যন্ত বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি হল আর কাজের ক্ষতি হয়ে গেল।

এই জন্য প্রত্যেক সাধারন ও বিশেষ মানুষের জন্য স্পষ্টভাবে এই ঘোষণা করা যাচ্ছে যে, মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্ড মারকাজ পূর্বের মতই ও পূর্বের রীতি অনুযায়ী এখনও তাবলীগী মারকাজ বাংলা মসজিদ নিজামুদ্দিনের জেলা শাখা হিসেবেই আছে এবং এখনও রাইবেন্ড মারকাজ নিজামুদ্দিন মারকাজের অধীনেই আছে।

মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্দ মারকাজ নিজামুদ্দিন মারকাজের মোকাবেলায় তাবলীগের স্বয়ংসম্পূর্ণ আলমী মারকাজ কখনোই নয়। অন্যান্য দেশের মত পাকিস্তানের তাবলীগের সমস্ত কাজও পূর্বের মত বাংলা মসজিদ নিজামুদ্দিনের সাথেই সম্পর্কযুক্ত।

দুনিয়ার শীর্ষ তাবলীগের মুরুব্বীদের রায়ের মধ্যে অবশ্যই কিছু মতভেদ হয়েছে যা কিনা অতি শীঘ্রই আল্লাহ তায়ালার ফজলে দূর হয়ে যাবে ইনশা আল্লাহ। সুতরাং তাবলীগের মারকাজগুলোর একত্রীকরণের চাহিদা এটাই যে পাকিস্তানের সমস্ত শহর, সমস্ত মারকাজ মসজিদ ও অন্য সব মসজিদগুলো মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্ড মারকাজের মাধ্যমে তাবলীগের মূল মারকাজ বাংলা মসজিদ নিজামুদ্দিন মারকাজের অধীনে কাজ করতে থাকে। আর অন্য কোন রায় প্রতিষ্ঠা না করে। জাযাকুমুল্লাহ খাইরান। আহসানুল জাযা।

এটা মনে থাকে যে, এই অডিও ক্লিপ জারি করার পিছনে আমাদের দুইটি উদ্দেশ্য আছে। এক, আমাদের বড়দের একটা পেরেশানি দূর করা প্রয়োজন। কেননা দাওয়াত ও তাবলীগের মারকাজগুলোর একত্রীকরণের বিষয়বস্তুর উপর আমাদের পক্ষ থেকে পূর্বে একটা অডিও ক্লিপ জারি করা হয়েছিল যার মাধ্যমে পাকিস্তানের সমস্ত মারকাজ মসজিদগুলোকে নিজামুদ্দিন মারকাজের সাথে সম্পর্ক করার জন্য দাওয়াত দেওয়া হয়েছিল। এই অডিও ক্লিপ এর দ্বারা সেটাকেই কিছু পুনঃগঠন করা হল। সেটা হল মারকাজগুলোর একত্রীকরণের বর্তমান চাহিদা এটাই যে সমস্ত শহরের মারকাজগুলোকে রাইবেন্ড মারকাজের মাধ্যমে নিজামুদ্দিন মারকাজের সাথে সম্পর্কযুক্ত করে রাখতে হবে।

এই অডিও ক্লিপ এর দ্বিতীয় উদ্দেশ্য এই যে এর মাধ্যমে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের স্পষ্টতা করা প্রয়োজন সেটা হল মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্ড মারকাজ আগের মত তার পূর্বের নিয়মের উপরই কায়েম আছে। অর্থাৎ মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্ড মারকাজ নিজামুদ্দিন মারকাজেরই শাখা। ফাকাদ ওয়াস সালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ ওয়া বারাকাতুহ।

বান্দা আবদুল মুঈদ

মুলতান, পাকিস্তান।

হজরত মাদ্রাসা আরাবিয়া রাইবেন্ড, পাকিস্তানের নগণ্য খাদেম।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com
error: Content is protected !!