রবিবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:১৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
নিজামুদ্দীন মারকাজ বিশ্ব আমীরের কাছে বুঝিয়ে দিতে আদালতের নির্দেশ সিরাত থেকে ।। কা’বার চাবি দেওবন্দের বিরোদ্ধে আবারো মাওলানা আব্দুল মালেকের ফতোয়াবাজির ধৃষ্টতা:শতাধিক আলেমের নিন্দা ও প্রতিবাদ একান্ত সাক্ষাৎকারে সাইয়্যেদ আরশাদ মাদানী :উলামায়ে হিন্দ নিজামুদ্দীনের পাশে ছিলেন, আছেন, থাকবেন তাবলীগের হবিগঞ্জ জেলা আমীর হলেন বিশিষ্ট মোহাদ্দিস মাওলানা আব্দুল হক দা.বা. হযরতজীর চারপাশের মানুষগুলো (পর্ব-১) সকল তবলিগি মামলা আট সপ্তাহে শেষের নির্দেশ ভারত সুপ্রিম কোর্টের!  যে ৭ শ্রেণীর মানুষ আরশের ছায়া পাবে মূলধারায় ফিরে আসা এক আলে‌মের জবানবন্দি -০১ এক আবেগী মাওলানা ও হযরতজী ইলিয়াস রহঃ ঘটনা
মুফতী ইজহারসহ কাকরাইলের শীর্ষ আলেমদের উপর চট্টগ্রামে পাকিপন্থীদের হামলা (ভিডিওসহ)

মুফতী ইজহারসহ কাকরাইলের শীর্ষ আলেমদের উপর চট্টগ্রামে পাকিপন্থীদের হামলা (ভিডিওসহ)

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি, তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম| মুফতী ইজাহারুল ইসলাম চৌধুরীসহ কাকরাইলের শীর্ষ মুরুব্বীদের উপর গতকাল সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। চট্টগ্রামের লালখান বাজার থানার পুলিশ খবর পেয়ে আলেমদের হেফাজত করে। তখন পুলিশ দেখে পাকিস্তানী শুরাপন্থী সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পুলিশের নিরাপত্তায় মুরিব্বীরা বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পান।

বাংলাদেশের প্রখ্যাত ফকীহ ও বিদগ্ধ আলেমেদ্বীন আল্লামা মুফতী ইজহারুল ইসলাম চৌধুরী ও তাবলীগের মুরুব্বী মাওলানা মুনির বিন ইউসুফ সহ কাকরাইলের উলামায়ে কেরাম গতকাল চট্টগ্রামে ‘উলামা জোড়’ এর বিশেষ তাকাযা নিয়ে আসেন। চট্টগ্রামের লালখান বাজার মাদরাসায় গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে তাবলীগের অন্যতম কেন্দ্রীয় মুরুব্বী মাওলানা মুনির বিন ইউসুফ, মুফতি নুরুল ইসলাম কাসেমী, কাকরাইল মসজিদের ভারপ্রাপ্ত ইমাম মাওলানা আনাস বিন মুজাম্মিল, মাওলানা ইসমাইল, আবদুল্লাহ শাকিল ও মাওলানা রাফে বিন আকিদুজ্জামান প্রমূখ মুফতী ইজহারুল ইসলাম চৌধুরীর সাথে সাক্ষাত করতে যান।

এ সময় লালখান বাজারের পাকিশুরাপন্থী সন্ত্রাসী রাশেদের নেতৃত্বে অপর সন্ত্রাসী রাজন, সাহেদ, মুফতি মুস্তাফিজসহ নাম না জানা আরো কয়েকজন সন্ত্রাসী এসে তাদের অকথ্য ভাষায় গালাগালি করতে থাকে। একপর্যায়ে তারা মুরুব্বীদের গায়ে হাত তুলে এবং আবদুল্লাহ শাকিলের মোবাইল ফোন কেড়ে নেয়।

এসময় তারা মুফতি ইজহার সাহেব ও মাওলানা নুরুল ইসলাম সাহেবকে অকথ্য ভাষায় গালাগালি ও হুমকি ধমকি দিতে থাকে। তারা বারবার এসব দেশবরেণ্য আলেমদের দিকে তেড়ে আসছিল এই বলে, তিনি যদি (মুফতি ইজহার) সাদ সাহেবের ব্যাপারে ফতোয়া না দেন তাহলে তারা দেখে নিবে। তখন সাধারণ মুসল্লীরা তাদের প্রতিরোধ করতে এগিয়ে আসেন। তখন মুফতি ইজহার হুংকার দিয়ে তাদের স্পষ্ট করে জানিয়ে দেন, আমি একজন নিরোপরাধ বিশ্ববরেণ্য বুজুর্গ ব্যক্তির উপর মিথ্যা ফতোয়া চাঁপাতে পারি না। আমি নিজামুদ্দিন মারকাযে গিয়ে তার কাছ থেকে আগে বুঝে আসব, তিনি এসব আকিদা বিশ্বাস করেন কি না, যা তোমরা বলছো।

তখন সন্ত্রাসীরা বলতে থাকে, “জমহুর আলেমদের উল্টো আপনি কথা বলছেন। এর পরিনাম ভয়াবহ হবে।” তাদের মারমূখি আচরণের খবর পেয়ে লালখান থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে হাজির হয়ে আলেমদের উদ্ধার করে চট্টগ্রামের লাভলেইন মারকাযে পৌছে দেয়।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবারে লাভলেইন মারকাযে চট্টগ্রাম বিভাগের ওলামাদের জোড় চলছিল। জোড় উপলক্ষে কাকরাইলের উলামায়ে কেরামের জামাত চট্টগ্রাম সফর করছে। তারা সেখানে চরম নিরাপত্তাহীনতা ও হুমকী ধমকীতে বারবার আক্রান্ত হচ্ছেন। এর ভিতর দিয়েই গতকাল চট্টগ্রাম মারকাযে পাঁচ শতাধিক আলেমের উপস্থিতিতে ‘উলামা জোড়’ অনুষ্ঠিত হয়।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com