বুধবার, ২৫ নভেম্বর ২০২০, ০৯:০৮ পূর্বাহ্ন

মোহাম্মদপুরে মসজিদে মুসল্লীর উপর মাদরাসা ছাত্রদের হামলা

মোহাম্মদপুরে মসজিদে মুসল্লীর উপর মাদরাসা ছাত্রদের হামলা

ষ্টাফ রিপোর্টার; তাবলীগ নিউজ বিডি ডটকম |মোহাম্মাদপুরে মাদরাসার ছাত্ররা মসজিদের ভিতরে তাবলীগের সাথীর উপর হামল করল। মোহাম্মদপুরের তাবলীগের জিম্মাদার সাথী মোহাম্মদ মিজানুর রহমান (৬০) নিজ মহল্লার মসজিদ জামেয়া রাহমানিয়ার সম্মূখে মোহাম্মদপুর সাত গম্বুজ মসজিদে জোহরের জামাতের পূর্বে সুন্নত নামাজ পড়া অবস্থায় তার উপর হমলা চালায়। এর আগে মুহাম্মাদপুর জামেয়া রাহমানিয়ার ছাত্ররা আবার তাবলীগের জোরে মসজিদে হামলা চালিয়েছিল।

জানাযায়, জামিয়া রহমানিয়া মোহাম্মদপুরের  একদল মাদ্রাসার ছাত্র এসে মসজিদের ভিতরে সুন্নাত নামাজ পড়া অবস্থায় প্রায় ৬০ এর মত বয়ছের বৃদ্ধ  মিজান সাহেবের উপর হামলা চালায়। এসময় দুই শতাধিক ছাত্র মসজিদের ভিতর বাহিরে অবস্থান করে হট্টগোল করতে থাকে। উল্লেখ্য যে, তাবলীগ নিয়ন্ত্রণে সক্রিয় দুই ওজাহাতি সহোদর নেতা মাওলসনা মাহফুজুল হক ও মামুনুল হক এর পরিচালিত এই মাদরাসা।

এসময় মসজিদের অন্য মুসল্লিরা মসজিদে নামাজরত অবস্থায় মিজানকে ছাত্রদের হামলা থেকে উদ্ধার করে।  মারধোর করা দেখে সহযোগিতা করতে এগিয়ে আসলে সাধারন মুসুল্লিদের  উপরও  মাদ্রাসার সন ছাত্ররা ক্ষিপ্ত হয়ে হুমকি দিতে থাকে। তারা অনন্য মুসল্লিদের তখন মারধর ও হমকী দিতে থাকে।

খবর পেয়ে মুহাম্মাদপুরে শতশত তাবলীগের সাথে সাত মসজিদ এড়িয়াতে জড়ো হতে থাদকেন। তারা বিষয়টি নিয়ে দলবেধেঁ মোহাম্মাদপুর থানায় যান। তারা হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবী করেন।  মিজানুর রহমান গত নভেম্বর মাস থেকে মালশিয়াতে ছিলেন। পাঁচদিব আগে দেশে এসেছেন। আসার পরে তাকে নানান হুমকী ধমকী দেয় হেফাজতী লোকজন। এনিয়ে তিনি দুদিন আগে মোহাম্মদপুর থানায় একটি জিডিও করেছিলেন।

 

এবিষয়ে তাবলীগের জিম্মাদার  মিজান তাবলীগ নিউজ বিডিডটকমকে জানান,  আমার সাথে এমন আচারণ করেছে এটি অনাকাঙ্খিত। ছেলেরা কি বুঝে? তাদেরকে যে সব হুজুর এসব কাজে ব্যবহার করছে এটি অন্যায়। তবুও সারাদেশের সমস্ত সাথীদেরকে বলব, এই বিষয় আলেমদের সম্পর্কে খারাপ ধারণা না করে সবাই যেন  আমার জন্য দোয়া কান্নাকাটি  করে এবং সবাই যার যার অবস্থান থেকে যেন আমল বাড়িয়ে দেন। পাল্টা বাড়াবাড়ি আমরা করব না। এর দ্বারা সাহায্য আসবে না, আমলের দ্বারা আল্লাহ সাহায্য করবেন। সবাই যেন মসজিদ আবাদের মেহনত জোরদার করেন এর দ্বারাই আল্লাহতালা হককে জিন্দা করবেন

সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে মোহাম্মদপুর থানার এসআই নয়ন মিয়ার কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক।

ূলধারার তাবলীগকর্মী মিজানুর রহমান। তিনি সাত মসজিদে নিজামুদ্দীনের অনুসারী তাবলীগকর্মীদের জিম্মাদার।এ খবর ছড়িয়ে পড়লে তাবলিগি সাথীরা জড়ো হয়ে প্রতিবাদ জানান।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com