শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:০০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
আল্লামা শাহ আহমদ শফীর ইন্তেকালে জাতীয় কওমী মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড এর শোক হাটহাজারী মাদরাসা বন্ধ ঘোষনা এক আল্লাহ জিন্দাবাদ… হাটহাজারী মাদরাসায় ছাত্রদের বিক্ষোভ ভাঙচুর : কওমীতে নজিরবিহীন ঘটনা ‘তাবলিগের সেই ৪ দিনে যে শান্তি পেয়েছি, জীবনে কখনো তা পাইনি’ তাবলীগের কাজকে বাঁধাগ্রস্থ করতে লাখ লাখ রুপি লেনদেন হয়েছে: মাওলানা সাইয়্যেদ আরশাদ মাদানী দা.বা. (অডিওসহ) নিজামুদ্দীন মারকাজ বিশ্ব আমীরের কাছে বুঝিয়ে দিতে আদালতের নির্দেশ সিরাত থেকে ।। কা’বার চাবি দেওবন্দের বিরোদ্ধে আবারো মাওলানা আব্দুল মালেকের ফতোয়াবাজির ধৃষ্টতা:শতাধিক আলেমের নিন্দা ও প্রতিবাদ একান্ত সাক্ষাৎকারে সাইয়্যেদ আরশাদ মাদানী :উলামায়ে হিন্দ নিজামুদ্দীনের পাশে ছিলেন, আছেন, থাকবেন
মসজিদ থেকে তাবলীগ জামাত বের করতে গিয়ে চাকরী হারালেন ইমাম

মসজিদ থেকে তাবলীগ জামাত বের করতে গিয়ে চাকরী হারালেন ইমাম

-ফাইল ফটো

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি, তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম। প্রশাসনের সর্বোচ্চ সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে মসজিদ থেকে তাবলীগ জামাত বের করতে গিয়ে জনরোষে পড়েছেন এক ইমাম। এ নিয়ে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে মসজিদের ইমামকে চাকুরীচ্যুত করতে বাধ্য হলেন মেয়র। জানা যায়, চুয়াডাঙ্গা জেলার দামুড়হুদা থাকার দর্শনা সেন্ট্রাল মসজিদে গতকাল তাবলীগের একটি জামাত পূর্বের ন্যায় মসজিদে ৩দিন সময় নিয়ে এলে মসজিদের ইমাম তাদেরকে বের হয়ে যেতে চাঁপ দিতে থাকেন।

এ খবর দর্শনা বাজারে ছড়িয়ে পড়লে বাজারের ব্যবসায়ী ও আশপাশ এলাকার হাজার হাজার মানুষ উত্তেজিত হয়ে ইমামের বিরুদ্ধে ক্ষিপ্ত হয়ে স্লোগান দিতে থাকেন। এ সময় খবর পেয়ে স্থানীয় মেয়র মতিউর রহমান এসে উত্তেজিত জনতাকে শান্ত করেন। মেয়র তখন প্রশাসনের মাধ্যমে আজ ১৩ই জানুয়ারী আলেম-উলামা ও স্থানীয় তাবলীগের সাথী নিয়ে এক জরুরী বৈঠকের আহ্বান করেন।

আজকের বৈঠকে সর্বসম্মতিক্রমে এলাকার বিরাজমান উত্তেজনা কমাতে দর্শনা সেন্ট্রাল মসজিদের ইমামকে আজ জুহর থেকে নামাজ না পড়ানোর নির্দেশ প্রদান করেন। এই ঘোষণার পর থেকে এলাকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে এবং আশপাশের মসজিদের ইমামদের মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধি পেয়েছে। বৈঠকে মেয়র বলেন, ইমাম সাহেব মসজিদ থেকে জামাত বের করে দিয়ে রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সিদ্ধান্তের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গুলী প্রদর্শন করেছেন। তাই আমরা তাকে বরখাস্ত করতে বাধ্য হয়েছি।

উল্লেখ্য যে, গত ৬ জানুয়ারী দুপুর ১২ টায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের সভাকক্ষে তাবলীগ জামাতের শীর্ষ মুরুব্বী ও প্রশাসনের উর্ধ্বতন অফিসারদের সাথে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয় যে, কোন মসজিদ থেকে কেউ তাবলীগের কোন জামাতকে বের করতে পারবে না এবং গাশত, তালীম সহ তাবলীগের কোন কাজে বাঁধা দিতে পারবে না।

এ সময় আলেম-উলামা ও তাবলীগের মুরুব্বিদের পক্ষ থেকে উপস্থিত ছিলেন, শোলাকিয়ার গ্রাণ্ড ইমাম আল্লাম ফরীদ উদ্দীন মাসউদ, তাবলীগ জামাতের আহলে শূরা সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম, মাওলানা মোশারফ, প্রফেসর ইউনুস শিকদার, মাওলানা আশরাফ আলী, টঙ্গীর ময়দানের জিম্মাদার ইঞ্জিনিয়ার মুহিব্বুল্লাহ, ক্বারী মাওলানা যুবায়ের, মাওলানা মাহমুদুল হাসান, মাওলানা মাহফুযুল হক, মাওলানা মাযহার প্রমূখ।

সরকারের পক্ষে মাননীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব জয়নাল আবেদীন মিয়া, ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ আব্দুল্লাহ, পুলিশের আইজি জাবেদ পাটোয়ারী ধর্ম সচিব আনিসুর রহমান, স্বরাষ্ট্রসচিব,  রেপিড একশন ব্যাটালিয়নের ডিজি বেনজির আহমেদ, ঢাকা মহানগর পুলিশ কমিশনার আছাদুজ্জামান, টঙ্গী পুলিশ কমিশনার বেলাল আহমেদ, কেবিনেট সচিব শফিউল ইসলাম সহ উর্ধ্বতন সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com