সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:৪৭ পূর্বাহ্ন

দেওবন্দের মোহাম্মদীয়া মার্কাজ মসজিদের শবগুজারীতে উপচেপড়া ভীড়

দেওবন্দের মোহাম্মদীয়া মার্কাজ মসজিদের শবগুজারীতে উপচেপড়া ভীড়

মাওলানা আহমাদ জামিল, দেওবন্দ থেকে, তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম| দারুল উলুম দেওবন্দ মাদরাসার মাত্র ৩০০ গজের ভিতর তাবলীগের মারকাজ “মোহাম্মদীয়া মসজিদ” অবস্থিত। যেটি দেওবন্দ এলাকায় দিল্লীর নিজামুদ্দিন বিশ্ব মারকাজের সরাসরি তত্বাবধানে পরিচালিত হয়ে আসছে। গতকাল শবগুজারীতেও চোখে পড়ার মতো ছাত্রদের উপচেপড়া ভীড় ছিল।

দেওবন্দ এরিয়ায় তাবলীগের একমাত্র মারকাজ মসজিদ এটি। তাবলীগের মারকাজ হিসাবে এই মসজিদটি দীর্ঘদিন ধরে পরিচালিত হয়ে আসছে। খোদ দেওবন্দ মাদরাসার ছাত্ররা মোহাম্মদীয়া তাবলীগ মারকাজ মসজিদে নিয়মিত শরিক হয়ে থাকেন।

জামাতের রোখ, ওয়াপসি কথা, হেদায়তি বয়ান, সাপ্তাহিক ও দৈনিক পরামর্শ, শবগুজারী, জোড় সহ সকল মারকাজি আমল এখানে নিয়মিত অনুষ্ঠিত হয়। দেওবন্দ মাদরাসা থেকে যেসব জামাত প্রতি সাপ্তাহে বের হয় এসবের নিগরানীও হয়ে থাকে এই মারকাজ থেকে।

মাদরাসার ভিতরে সম্প্রতি সময় তাবলীগের দুই পক্ষের অযুহাতে দারুল উলুম কতৃপক্ষ কোন পক্ষের সাথেই নেই বলে ছাত্রদের কাজ বন্ধ করে দেয়। যদিও বাস্তবে দেওবন্দ এলাকায় সরজমিনে ঘুরে অসংখ্য মুবাল্লিগ ও মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষকদের সাথে আলাপ করে কথিত শুরাপন্থীদের কোন অস্তিত্ব বা হদীস খোঁজে পাওয়া যায় নি। গোটা দেওবন্দের সকল মসজিদে পাঁচ কাজ ও দাওয়াত-তালীম-ইস্তেকবালসহ মসজিদ আবাদির মেহনত করছেন হাজারো মুবাল্লিগ, ছাত্র ও আলেম -উলামা। যারা মাওলানা সাদ কান্ধলভীকে আমীর মেনেই দাওয়াতী কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।

বর্তমান পরিস্থিতিতেও এই মোহাম্মদীয়া মসজিদে ঐতিহ্যগতভাবে দাওয়াত ও তাবলীগের সাথে জড়িত সকল ছাত্র শিক্ষক নিয়মিত আমলে জুড়ছেন। তাবলীগের সকল তাকাযা নিজামুদ্দিন মারকাজের ফায়সালা অনুযায়ী মোহাম্মদীয়া মসজিদ থেকে বাস্তবায়িত হচ্ছে।

বাংলাদেশ থেকে প্রতিনিধি দল অাসাকে কেন্দ্র করে ফের গতকাল বৃহস্পতিবার দারুল উলুম দেওবন্দের একটি এলানের পর কেউ কেউ শঙ্কা করেছিলেন, মোহাম্মদীয়া মসজিদে শবগুজারীতে ছাত্র শিক্ষকরা অংশ নিতে পারবেন কি না। কিন্তু গতকাল শবগুজারীতে দেখা যায়, ব্যাপকহারে ঠিকই ছাত্ররা অংশ নিয়েছে। এতে দেওবন্দ কতৃপক্ষের কোন বাঁধা নেই। জানা যায়, মোহাম্মদীয়া মসজিদে পূর্বের ন্যায় আমলে শরীক হতে দেওবন্দ মাদরাসা কতৃপক্ষের কোন আপত্তি নেই। গতকাল শবগুজারীতে দেওবন্দের অনেক উস্তাদরা পূর্বের মতোই শরীক হন এবং পাবন্দির সাথে শবগুজারীতে অংশ নেন। মসজিদে ছাত্র ও মুবাল্লিগদের উপচে পড়া ভীড় ছিল নজর কাড়ার মত।

আজ শুক্রবারও দেওবন্দের এই মারকাজ মসজিদ থেকে ফজরের বয়ানের পর ৮টি ছাত্র জামাত বের হয়েছে। এ বিষয়ে দেওবন্দের তাবলীগ জামাতের অন্যতম জিম্মাদার মুফতী ফুরকানের সাথে আলাপ হলে তিনি জানান, দেওবন্দে সবকিছুই আগের মতো চলছে। দুই তিনজন কতৃপক্ষ ছাড়া গোটা দেওবন্দের অধিকাংশ শিক্ষকই নিজামুদ্দিনের অনুসারী। ফলে ভিতরে যাই বলা হোক বাস্তবে তাবলীগের কাজে এখানে আজ পর্যন্ত কোন বাঁধা নিষেধ আসেনি। আর ইনশাআল্লাহ আগামীতেও আসবে না। মাদরাসার ছাত্ররা আগের মতই খুরুজ হচ্ছে, মেহনত করছে। দেওবন্দ মারকাজে হযরতজী সাদ কান্ধলভী দা.বা.কে আমীর মেনেই সবাই মেহনত করছেন।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com