শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:১০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হাটহাজারী মাদরাসা বন্ধ ঘোষনা এক আল্লাহ জিন্দাবাদ… হাটহাজারী মাদরাসায় ছাত্রদের বিক্ষোভ ভাঙচুর : কওমীতে নজিরবিহীন ঘটনা ‘তাবলিগের সেই ৪ দিনে যে শান্তি পেয়েছি, জীবনে কখনো তা পাইনি’ তাবলীগের কাজকে বাঁধাগ্রস্থ করতে লাখ লাখ রুপি লেনদেন হয়েছে: মাওলানা সাইয়্যেদ আরশাদ মাদানী দা.বা. (অডিওসহ) নিজামুদ্দীন মারকাজ বিশ্ব আমীরের কাছে বুঝিয়ে দিতে আদালতের নির্দেশ সিরাত থেকে ।। কা’বার চাবি দেওবন্দের বিরোদ্ধে আবারো মাওলানা আব্দুল মালেকের ফতোয়াবাজির ধৃষ্টতা:শতাধিক আলেমের নিন্দা ও প্রতিবাদ একান্ত সাক্ষাৎকারে সাইয়্যেদ আরশাদ মাদানী :উলামায়ে হিন্দ নিজামুদ্দীনের পাশে ছিলেন, আছেন, থাকবেন তাবলীগের হবিগঞ্জ জেলা আমীর হলেন বিশিষ্ট মোহাদ্দিস মাওলানা আব্দুল হক দা.বা.

মাশায়েখে কান্ধালার খোঁজে একদিন

Exif_JPEG_420

সৈয়দ আনোয়ার আবদুল্লাহ, দিল্লী থেকে, তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম।  গতকাল রেলষ্টেশন গাড়ী প্রবেশ করতেই বড় অক্ষরে চোখ পড়লো “কান্ধালা” “kandala” ।  মুহুতেই হৃদয়পটে ভেসে উঠলো “মাশায়েখে কান্ধাল’র স্মৃতি। হাজার পৃষ্ঠার গ্রন্থটি কবে যে পড়েছিলাম ভুলে গেছে। সাইয়্যেদেনা হযরত সিদ্দিকে আকবর রা.রক্তধারার মনীষাদের চরণভুমি এই কান্ধালা। ভরতের উত্তর প্রদেশে ইউপির মজাফফর নগর জেলার এক গ্রাম।

 

ট্টেন থেকে তাবলীগ নিউজের সাংবাদিকদের টিম নামতেই অটোরিকশা (টমটম) ড্রাইভাররা এসে জিজ্ঞাসা করল “আপনারা কি আমাদের হযরতজীর বাড়িতে যাবেন”।  তার দরদী কথাটি (আমাদের হযরতজী) শুনেই চোখ দিয়ে আমার অঝোর ধারায় অশ্রুু বের হতে থাকল। আমি কোন কথাই বলতে পারলাম না আবেগে। আমার সাথে থাকা মুফতী ফজলুর রহমান সাহেব বললেন, আমাদের নিয়ে চলল হযরতজীর বাড়িতে।

কিছুক্ষন যাবার পর ড্রাইভার একটি ছোট নদী (ছড়া) পার হতে হতে বলল, এটি হামারা হযরতজী সাদ ছাহেব কা বাড়ি। আমি তখন মনে মনে ভাবছিলাম কান্ধালাবাসী তোমরা হয়তো জাননা আজ ” তোমাদের হযরতজী আমাদের দেশে কতটা মজলুম আর মিথ্যা ও অপপ্রচারে শিকার”।

এই কান্ধালার কথা মনে হলেই হৃদয়কোনে ভেসে উঠে কিছু নাম, মুফতী এলাহি বক্স কান্ধলভী (আমিরুল হিন্দ শাহ আব্দুল আজিজ রহঃ এর খাছ ছাত্র ও শাহ ওয়ালী উল্লাহ মোহাদ্দিসে দেহলভীর অন্যতম সহচর),  মাওলানা মুজাফ্ফর হাসান কান্ধালভী (হুজ্জাতুল ইসলাম কাসিম নামুতুবীর শায়েখ) মাওলানা ইদ্রিস কান্ধালভী, হযরতজী মাওলানা ইলিয়াস কান্ধালভী, শায়খুল হাদীস জাকারিয়া কান্ধালভী, হযরতজী মাওলানা ইউসুফ কান্ধালভী,  মাওলানা এনামুল হাসান কান্ধালভী,  মাওলানা এহতেসামুল হাসান কান্ধালভী, মাওলানা যুবায়রুল হাসান কান্ধালভী,  মাওলানা হারুন সাহেব কান্ধালভী, মাওলানা পীর ইফতেখারুল হাসান কান্ধালভী, হযরতজী  মাওলানা মোহাম্মদ সাদ কান্ধলভী, মাওলানা ত্বালহা কান্ধালভী দা.বা।  শৈশব থেকে আহলে হকের এই বরণ্যদের পরিবারের সাথে পরিচিতি ছিলাম। যে পরিবার গোটা মুসলিম জাহানের,  এলেম, দাওয়াতের কাজের নেতৃত্ব দিয়ে আসছে কয়েক শতাব্দী ধরে। (তাদেরসহ পুরো কান্ধালার মাশায়েখদের নিয়ে আমার সফর নামা গ্রন্থে বিস্তারিত লিখব)

আমরা প্রথমে দেখা করলাম, প্রবীন বুজুর্গ,ওয়ালিউল্লাহ বাগানের শতবর্ষী মনীষা, হযরত আব্দুল কাদির রায়পুরী রহ এর একমাত্র জীবিত খলিফা মাওলানা ইফতিখারুল হাসান কান্ধলভি হাফিযাহুল্লাহ।  (যিনি হযরতজী মাওলানা সাদ সাহেবকে খেলাফতি দিয়েছেন)

তার পরে দেখতে গেলাম সেই ঐতিহাসিক মাকতাবাত (পাঠাগার) ও মুফতি এলাহি বখশ একাডেমী। যা হযরতজী ইলিয়াস রহ এর নিজ ভিটায় প্রতিষ্ঠিত।মুফতী তাক্বী উসমানী সাহেব হাফিযাহুল্লাহ তাঁর পান্ডিত্য ও মাকতাবা দেখে নিজ সফর নামায় লিখেছিলেন “হিন্দুস্তান সফরে উনার মাকতাবার মত সবধরণের কিতাবের দ্বারা সমৃদ্ধশীল এমন মাকতাবা আমি আর কোথাও দেখি নাই” ৷

এর পরিচালক মুয়াররিখুল হিন্দ বা ভারতবর্ষের ইতিহাসবিদ খ্যাত, বাহরুল উলুম মাওলানা নূরুল হাসান রাশেদ কান্ধালভীর সাথে দীর্ঘ সময় কাটালাম। এর পর হযরত এনমুল হাসান কান্ধালভী সহ কান্ধালার সেই পাড়াতে হাটলাম যেখানে বেঠে উঠেছেন আমাদের আকাবিরগন। যে মাটি পরশে কেটেছে তাদের শৈশব কৈশোর। আজো হযরতজী ইলিয়াস রহ এর আমলের অনেক ঘর তাদের বাড়িতে আছে।

সেখান থেকে চলে গেলাম, ইফতেখারুল হাসান রহ এর খানকা ও মাদরাসায়। যে মাদরাসার ওয়ালে ওয়ালে লিখা আছে মাশায়েখে কান্ধালার জীবন ইতিহাস। শুধু মাত্র পাক ভারত উপমহাদেশ নয়,  কান্ধালার খান্দানের মতো এতো মুসলিম বিশ্বে এমন ঐতিহাসিক, ঐতিহ্যবাহী, উলামা মাশায়েখদের খান্দান পৃথিবীর ইতিহাসে আরেকটি নেই।

তার পরে মাশায়েখে কান্ধালার মাকবারাহ জিয়ারত করে চলে এলাম দিল্লীতে।

 

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com