শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৪৪ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হাটহাজারী মাদরাসা বন্ধ ঘোষনা এক আল্লাহ জিন্দাবাদ… হাটহাজারী মাদরাসায় ছাত্রদের বিক্ষোভ ভাঙচুর : কওমীতে নজিরবিহীন ঘটনা ‘তাবলিগের সেই ৪ দিনে যে শান্তি পেয়েছি, জীবনে কখনো তা পাইনি’ তাবলীগের কাজকে বাঁধাগ্রস্থ করতে লাখ লাখ রুপি লেনদেন হয়েছে: মাওলানা সাইয়্যেদ আরশাদ মাদানী দা.বা. (অডিওসহ) নিজামুদ্দীন মারকাজ বিশ্ব আমীরের কাছে বুঝিয়ে দিতে আদালতের নির্দেশ সিরাত থেকে ।। কা’বার চাবি দেওবন্দের বিরোদ্ধে আবারো মাওলানা আব্দুল মালেকের ফতোয়াবাজির ধৃষ্টতা:শতাধিক আলেমের নিন্দা ও প্রতিবাদ একান্ত সাক্ষাৎকারে সাইয়্যেদ আরশাদ মাদানী :উলামায়ে হিন্দ নিজামুদ্দীনের পাশে ছিলেন, আছেন, থাকবেন তাবলীগের হবিগঞ্জ জেলা আমীর হলেন বিশিষ্ট মোহাদ্দিস মাওলানা আব্দুল হক দা.বা.
অপারগতা প্রকাশ করল দেওবন্দ| অনিশ্চিত প্রতিনিধি দলের সফর

অপারগতা প্রকাশ করল দেওবন্দ| অনিশ্চিত প্রতিনিধি দলের সফর

ষ্টাফ রিপোর্টার, তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম। দারুল উলুম দেওবন্দ আনুষ্ঠানিক নিজের অবস্থান জানান দিল। তাবলীগের চলমান সংকট নিরসণে ভারতের দেওবন্দে আগামীকাল ২২ তারিখে একটি সরকারী প্রতিনিধিদল যাবার কথা ছিল। ইতোমধ্যে প্রতিনিধি দলের তালিকা বাংলাদেশ হাইকমিশনারের মাধ্যমে দেওবন্দে পাঠিয়ে দিয়েছিল। দেওবন্দ সে তালিকা দেখে গতকাল ভারতের হাইকমিশনারকে চিঠি দিয়েছে।

ওই চিঠিতে দারুল উলুম দেওবন্দ উল্লেখ করে, তাবলীগের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে আগামী ২২শে জানুয়ারীর মধ্যে বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় ধর্মপ্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে যে জামাত দেওবন্দ মাদ্রসায় যাওয়ার কথা সেই জামাতের সাথে তাবলীগের বিষয়ে আলোচনার জন্য দেওবন্দ প্রস্তুত নয়। তাই এই জামাতকে এখন দেওবন্দ না পাঠানোর জন্য দেওবন্দ মাদ্রাসার কর্তৃপক্ষ বাংলাদেশ সরকারকে অনুরোধ করেন।

এই পরিপ্রেক্ষিতে টঙ্গী ইজতেমা বিষয়ে পরবর্তী করণীয় নিয়ে আজ সোমবার বিকেল সাড়ে তিনটায় বাংলাদেশ সচিবালযে় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কার্যালয়ে উভয়পক্ষকে নিয়ে মিটিং ডাকা হয়েছে বলে একটি সূত্রে জানা গেছে।

একটু পরে পড়ুন, দেওবন্দ কেন প্রতিনিধি দলের সাথে কথা বলতে অনাগ্রহ প্রকাশ করল?

চিন্তাশীল উলামায়ে কেরাম বিষ্ময় প্রকাশ করে বলেন, সত্য প্রকাশে দেওবন্দের এই গড়িমসি ও অপারগতা প্রকাশ খুবই উদ্বেগজনক। ফতুয়া দিয়ে আগুন লাগিয়ে এখন কাকে খুশি করার জন্য তারা এড়িয়ে যাচ্ছেন? এটা আকাবিরদের সেই দেওবন্দ নয়, এটা কোন ইসলামবিরোধী অপশক্তির সেবাদাসে পরিণত হওয়া একটি ভবনমাত্র।

ওজাহাতি আলেমরাও চরম হতাশা ব্যক্ত করেছেন ব্যপারটি নিয়ে। তারা উদ্বেগের সহিত বলেন “এতদিন বুঝি নি। যে দেওবন্দের নাম শুনে চোখ বন্ধ করেই মাওলানা সা’দের বিরোধিতায় লেগেছিলাম সে দেওবন্দ তো এ বিষয়ে মুখ খুলতেও রাজী না। আজ বুঝে গেলাম, দেওবন্দ ও বাংলাদেশের রাজনৈতিক আলেমদের মাঝে কোন তৃতীয় পক্ষ ঢুকে আছে। আমরা এখন থেকে নিযামুদ্দীনের সাথেই থাকবো ইনশা আল্লাহ।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com