শুক্রবার, ২০ নভেম্বর ২০২০, ০৪:০৫ পূর্বাহ্ন

বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে গুজবে কান দিবেন না

বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে গুজবে কান দিবেন না

ষ্টাফ রিপোর্টার; তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম

আসন্ন তাবলীগের বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে যে মূহুর্তে বাংলাদেশের ১৬কোটি মানুষ অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে সেই মূহুর্তে যে তৃতীয় শক্তি বাংলাদেশে তাবলীগ নিয়ন্ত্রণের অপচেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে তারা ক্রমাগত গুজব ছড়িয়ে যাচ্ছে অনলাইন-অফলাইনে। বিশেষ করে কাকরাইলের আহলে শূরাদের মিলে যাওয়া ও সরকারের পক্ষ থেকে এই তৃতীয় পক্ষকে তাবলীগের কাজে নাক না গলানোর কড়া নির্দেশনা দেওয়ার পর থেকে তারা আবারো ষড়যন্ত্র নিয়ে মাঠে নামার ব্যর্থচেষ্টা করছে।

তাবলীগের দুই পক্ষ এক হয়ে গেলে মাঠ গরমের রাজনীতি, ওজাহাতি জোড়ের নামে বয়ান বক্তৃতার মাধ্যমে নিজেদেরকে ‘লাইম লাইট’-এ নিয়ে আসার পথ রুদ্ধ হয়ে যাচ্ছে রাজনীতিতে চরম ব্যর্থ এই অংশটির।

এ বিষয়ে গতকাল ২৫ জানুয়ারি শুক্রবার রাজধানীর খিলগাঁও-তে ইকরা বাংলাদেশ জামে মসজিদ কমপ্লেক্সে জুমার বয়ানে সাইয়্যিদ আসআদ মাদানী রহ.-এর খলীফা আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ জাতিকে সতর্ক করে বলেনঃ তাবলীগের দুই পক্ষের মিলন দেখে মুনাফিকদের জ্বালাপোড়া শুরু হয়ে গেছে। তারা আবার বিভেদ সৃষ্টি করার পায়তারা করছে। আল্লাহ আমাদেরকে ও তাবলীগ জামাতকে মুনাফিকদের খপ্পর থেকে রক্ষা করুন।

জঙ্গে জামালে যেভাবে মুনাফিকরা হযরত আলী রা. ও হযরত আয়শা রা.-এর মধ্যে যুদ্ধ লাগিয়ে ছিল, ঠিক এই ভাবে টঙ্গীর ময়দানে যে মারামারি হয়েছিল এটা এই যামানার মুনাফিকরা লাগিয়ে ছিল দাবি করে আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ বলেন, টঙ্গীর ময়দানে যে মরামারি হয়েছিল, এর জন্য তাবলীগের সাথী কিংবা মাদরাসার ছাত্র-শিক্ষকরা দায়ী নয়। দায়ী হলো এই যামানার মুনাফিকরা। মুনাফিকরা তাবলীগের দুইগ্রুপের সাথে মিশে এক পক্ষ আরেক পক্ষের উপর হামলা করে এই মারামারি লাগিয়েছিল। আর নিরপরাধ মানুষগুলোর রক্ত ঝরালো।

বিশ্লেষক মহল আশঙ্কা করছেন, মাওলানা যুবায়ের গত দু’দিন আগে সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলামের সাথে তৃতীয় পক্ষকে পেছনে ঠেলে মিলে যাওয়াকে কোনভাবেই মেনে নিতে পারছে না এই মুনাফিক চক্রটি। বিশ্ব ইজতেমা ও আল্লামা সাদ কান্ধলভীকে নিয়ে অনলাইন-অফলাইনে নানান অপপ্রচার চালিয়ে ময়দানে আসার চেষ্টা করছে। বিষয়টি জানাজানি হয়ে গেলে চরম সতর্ক অবস্থান গ্রহণ করেন তাবলীগের সাথীরা। তারা যেকোন মূল্যে ইজতেমা সফল করতে তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ শক্তহাতে প্রতিহত করতে দৃঢ় প্রতিজ্ঞ। এব্যপারে সদ্য নিষিদ্ধ তৃতীয় পক্ষের ষড়যন্ত্রমূলক কার্যক্রমের ব্যপারে প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন পরিণামদর্শী সচেতন মহল।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর এই উদ্যৌগকে তারা স্বাগত জানিয়েছেন। সচেতন তাবলীগকর্মীরা মনে করেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে পরাজিত শক্তিটি তাবলীগ বিষয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপর বাড়তি চাঁপ সৃষ্টি করে প্রশাসনকে বিপাকে ফেলতে চাচ্ছে। তারা নতুন করে বিশ্ব ইজতেমা ও তাবলীগের ঐক্যবিরোধী নানান বয়ান-বক্তৃতা ও ফেসবুক লাইভ ও ষ্ট্যাটাস দিয়ে নতুন নতুন গুজব ভাইরাল করছে। এসব গুজবে কান না দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তাবলীগের মুরুব্বীগণ। তারা বলছেন, যথাসময়ে নিযামুদ্দীনের জামাতের তত্বাবধানে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হবে।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com