বৃহস্পতিবার, ২৪ Jun ২০২১, ০৬:০৭ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
চলতি মাসেই চালু হচ্ছে ৫০ মডেল মসজিদ অনলাইনে বিভিন্ন গ্রুপ ও পেইজ এডমিনদের নিয়ে মাশোয়ারার  বাংলাদেশে আরবি বিস্তারের মহানায়ক আল্লামা সুলতান যওক নদভী (দা.বা) দেওবন্দে গেলেন হযরতজী মাওলানা সাদ কান্ধলভী দা.বা. মনসুরপুরীকে নিয়ে সাইয়্যেদ সালমান হুসাইনি নদভির স্মৃতি চারণ আল্লামা ক্বারী উসমান মানসুরপুরীর ইন্তেকালে বিশ্ববরেণ্য আলেমদের শোক আমীরুল হিন্দ আল্লামা ক্বারী উসমান মানসুরপুরীঃ জীবন ও কর্ম আমার একান্ত অভিভাবক থেকে বঞ্চিত হলাম : মাহমুদ মাদানী মানসুরপুরীর ইন্তেকালে জাতীয় কওমী মাদরাসা শিক্ষাবোর্ডের গভীর শোক প্রকাশ দেওবন্দের কার্যনির্বাহী মুহতামিম সাইয়েদ কারী মাওলানা উসমান মানসুরপুরী আর নেই
ঐক্যবিরোধী কার্যক্রম সম্পর্কে জানেন না মাওলানা জুবায়ের: আবারো সক্রিয় তৃতীয় শক্তি

ঐক্যবিরোধী কার্যক্রম সম্পর্কে জানেন না মাওলানা জুবায়ের: আবারো সক্রিয় তৃতীয় শক্তি

আদনান হাবিব, তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম

বিশ্ব ইজতেমা বাস্তবায়নে তাবলীগের বিবাদমান দুপক্ষের ঐক্য আবারো সহ্য করতে পারছেনা তৃতীয় শক্তি। বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে ঐক্য গঠনের পর থেকে গত ৫দিনে একের পর এক ঐক্যবিরোধী কাজ করায় ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন মাওলানা জুবায়ের। তখন এসব বিষয়ে তার কাছে জানতে চাইলে, তিনি বলেন এসবের কিছুই তিনি জানেন না। পরামর্শ ছাড়া এককভাবে বিশ্ব ইজতেমা নিয়ে কাজ করার প্রশ্নই আসে না। এসব তৃতীয় কেউ তার নামে করছে বলে তিনি জানান।

কাকরাইলের আহলে শূরা সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলামের সাথে কোন প্রকার পরামর্শ ছাড়াই মাওলানা জুবায়েরের সাক্ষর স্কেন করে বিদেশিদের কাছে আলমিশুরার নামে ভুয়া চিঠি প্রেরণ করে তৃতীয়পক্ষ। গত শনিবার টঙ্গীর ময়দানের জিম্মাদারের নেতৃত্বে মূলধারার সাথী মাঠের কাজের ব্যাপারে মাওলানা জুবায়েরের সাথে দেখা করতে গেলে তাদেরকে দেখা করতে দেয়া হয় নি। রবিবার দিন প্রসাশন ও উভয়পক্ষের সাথে পরামর্শ ছাড়াই কিছু লোক ময়দানের কাজ উদ্ভোধন করতে গিয়ে পুলিশের বাঁধার মূখে পরে। এসব বিষয় নিয়ে মাওলানা জুবায়ের তাবলীগের মূলধারা ও প্রসাশনের পক্ষ থেকে ব্যাপক চাঁপের মধ্যে পড়েন। তখন তার সাথে যোগাযোগ করলে, মাওলানা জুবায়ের বলেন, তিনি এই বিষয়গুলো সম্পর্কে কিছুই জানেন না। তৃতীয় পক্ষের কারো কাজ এটি।

গত মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সভাপতিত্বে তাবলীগের দুই পক্ষ থেকে দুজন করে সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম, মাওলানা জুবায়ের, মাওলানা উমর ফারুক ও খান শাহাবুদ্দীন নাসিমকে দিয়ে বিশ্ব ইজতেমার যাবতীয় কাজ করার জন্য কমিটি করে দেয়া হয়। পরদিন বৃহস্পতিবার ধর্মমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহর সভাপতিত্বে এই চারজনের বৈঠকে মাওলানা জুবায়ের ও সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলামকে আগামী বিশ্ব ইজতেমার যাবতীয় কাজ যৌথভাবে পরিচালনার সিদ্ধান্ত হয়। কিন্তু এরপর দিন থেকেই একের পর এক ঐক্যবিরোধী কাজ শুরু হয় মাওলানা জুবায়েরের নামে।

এবিষয়টি নিয়ে তাবলীগের সাথীরা বিস্ময় প্রকাশ করেন। তারা মনে করছেন, মাওলানা জুবায়েরের আশপাশেই তৃতীয়শক্তির লোকজন রয়েছেন। তারাই উনার নাম ব্যাবহার করে ঐক্যবিরোধী ও ঐক্য ভঙ্গ করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়।

সচেতন ঐক্যকামী আলেমরা বলেছেন, যারা মাওলানা জুবায়েরের নাম ব্যবহার করে বিশ্ব ইজতেমার ঐক্যবিরোধী কাজ করছে তাদের আইনের আওতায় আনা জরুরী। যেকোন মূল্যে তাবলীগের সাথীদের ঐক্য ধরে রেখে বিশ্ব ইজতেমা সফল করতে হবে।

এ বিষয়ে আল্লামা ফরীদ উদ্দীন মাসঊদ গত শুক্রবারে বলেছেন, তাবলীগের ঐক্যে তৃতীয়পক্ষের গায়ে জ্বালাপোড়া শুরু হয়ে গেছে। মুনাফিকরা কোনভাবেই তাবলীগের ঐক্য সহ্য করতে পারছে না। তারা আবারো সক্রিয়। জঙ্গে জামাল ও জঙ্গে সিফফিনের মতো হযরত আলী রা. ও হযরত আয়শা রা.এর মাঝে যেভাবে ফাটল তৈরি করে যুদ্ধ লাগিয়ে দিয়েছিল, বাংলাদেশেও তারা তাবলীগের উভয় পক্ষের মাঝে এই কাজটি করে যাচ্ছে। মুনাফিকদের সম্পর্কে সতর্ক থেকে তাবলীগের ঐক্যকে ধরে রেখে বিশ্ব ইজতেমা বাস্তবায়ন করতে হবে।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com