শুক্রবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৪৩ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
হাটহাজারী মাদরাসা বন্ধ ঘোষনা এক আল্লাহ জিন্দাবাদ… হাটহাজারী মাদরাসায় ছাত্রদের বিক্ষোভ ভাঙচুর : কওমীতে নজিরবিহীন ঘটনা ‘তাবলিগের সেই ৪ দিনে যে শান্তি পেয়েছি, জীবনে কখনো তা পাইনি’ তাবলীগের কাজকে বাঁধাগ্রস্থ করতে লাখ লাখ রুপি লেনদেন হয়েছে: মাওলানা সাইয়্যেদ আরশাদ মাদানী দা.বা. (অডিওসহ) নিজামুদ্দীন মারকাজ বিশ্ব আমীরের কাছে বুঝিয়ে দিতে আদালতের নির্দেশ সিরাত থেকে ।। কা’বার চাবি দেওবন্দের বিরোদ্ধে আবারো মাওলানা আব্দুল মালেকের ফতোয়াবাজির ধৃষ্টতা:শতাধিক আলেমের নিন্দা ও প্রতিবাদ একান্ত সাক্ষাৎকারে সাইয়্যেদ আরশাদ মাদানী :উলামায়ে হিন্দ নিজামুদ্দীনের পাশে ছিলেন, আছেন, থাকবেন তাবলীগের হবিগঞ্জ জেলা আমীর হলেন বিশিষ্ট মোহাদ্দিস মাওলানা আব্দুল হক দা.বা.
এবার আলোচনায় “বাংলাদশ তাবলীগ মার্কাজ ট্রাস্ট”! প্রতিষ্ঠানটি কাদের নিয়ন্ত্রিত? (অনুসন্ধান)

এবার আলোচনায় “বাংলাদশ তাবলীগ মার্কাজ ট্রাস্ট”! প্রতিষ্ঠানটি কাদের নিয়ন্ত্রিত? (অনুসন্ধান)

ষ্টাফ রিপোর্টার, তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম।

বিশ্ব ইজতেমাকে সামনে রেখে এবার আলোচনায় উঠে এসেছে “বাংলাদশ তাবলীগ মার্কাজ ট্রাস্ট”। আসলে এই মার্কাজ ট্রাস্ট কোথা থেকে বা কাদের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রিত? নাকি এটি স্বতন্ত্র কোন প্রতিষ্টান?

গত শনিবার তাবলীগের মুরুব্বীদের কোন প্রকার পরামর্শ ছাড়া মাওলানা জুবায়েরের স্বাক্ষরিত বিশ্ব ইজতেমা সংক্রান্ত এক চিঠিতে তিনি নিজের নামের সাথে লিখেন, ইমাম ও প্রিন্সিপাল মাদরাসায়ে উলুমে দ্বীনীয়া, চেয়ারম্যান “বাংলাদশ তাবলীগ মার্কাজ ট্রাস্ট”।

এরপর থেকেই মূলত “বাংলাদশ তাবলীগ মার্কাজ ট্রাস্ট” নতুন করে আলোচনায় উঠে আসে। এর আগে তাবলীগের ভিতরের লোকজন ছাড়া বাহিরের কেউ জানতেন না এই ট্রাস্টের খবর। তাবলীগের জুবায়েরপন্থীরা দাবী করছেন, “বাংলাদশ তাবলীগ মার্কাজ ট্রাস্ট” মাওলানা জুবায়ের নিয়ন্ত্রিত। তিনি এর চেয়ারম্যান।

তারা এমন দাবী করলেও তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম এর অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে অন্য তথ্য। দেখা যায়, “বাংলাদশ তাবলীগ মার্কাজ ট্রাস্ট” মূলত ভারতের দিল্লীর নিজামুদ্দিন বিশ্ব মার্কাজের সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রিত একটি প্রতিষ্টান। যা ট্রাস্টের কাগজপত্রে উল্লেখ আছে এবং মাওলানা জুবায়ের নিজেই সেটি বিভিন্ন সময় রাজস্ব বোর্ডসহ বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ে দেয়া চিঠিতে উল্লেখ করেছেন।

অনুসন্ধানে তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম এর কাছে এমনি একটি চিঠি আসে। যা ২০১৪সালে ৩১মার্চ জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সচিব মো রফিকুল ইসলামের বরাবর “বাংলাদশ তাবলীগ মার্কাজ ট্রাস্ট”এর প্রাপ্ত দান/আয়কর অব্যাহতি প্রদান সংক্রান্ত ট্রাস্টের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ জোবায়ের স্বাক্ষরিত এক চিঠতে তিনি নিজেই উল্লেখ করেন, “দিল্লীর নিজামুদ্দিন মার্কাজের অনুমতিপ্রাপ্ত বাংলাদেশে ইহাই একমাত্র তাবলীগের প্রতিষ্টান।”

মাওলানা মোহাম্মদ জুবায়ের স্বাক্ষরিত চিঠিই প্রমাণ করে, এই ট্রাস্ট তাবলীগের বিশ্ব মার্কাজের অনুমতি স্বাপেক্ষে পরিচালিত। তারপরে মাওলানা জুবায়ের কী করে নিজামুদ্দিন বিশ্ব মার্কাজের বিরুদ্ধে চিঠিতে অপপ্রচার চালান তা অনেকেরই বোধগম্য নয়। অপরদিকে এই ট্রাস্টের নিয়ন্ত্রিত একটি প্রতিষ্ঠান টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা।

সে হিসাবে এই ট্রাস্টের মূল কেন্দ্র যেহেতু দিল্লীর নিজামুদ্দিন মার্কাজ, তাই সেখানের মুরুব্বীদের জামাতই টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দানের যাবতীয় ফায়সালা করে আসছেন গত ৫৩বছর ধরে। সেই চিরাচরিত নিয়ম অনুযায়ী তাবলীগের সাথীরা মনে করছেন, বিশ্ব ইজতেমা ২০১৯সালেও দিল্লীর নিজামুদ্দিন মার্কাজ থেকে আগত জামাতের আমীরই পরিচালনা করা উচিত।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com