বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:৪২ পূর্বাহ্ন

আজ থেকে বগুড়া ইজতেমা শুরু | লাখো মুসল্লীর বাঁধভাঙ্গা ঢল

আজ থেকে বগুড়া ইজতেমা শুরু | লাখো মুসল্লীর বাঁধভাঙ্গা ঢল

বগুড়া প্রতিনিধি, তাবলীগ নিউজ  বিডিডটকম |

আজ থেকে দেশ-বিদেশি লাখো মুসল্লীর অংশ গ্রহনে  আম-বয়ানের মধ্য দিয়ে বগুড়া ইজতেমা শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বাদ ফজর বগুড়ার মাওলানা আশরাফ আলী সাহেবের আম বয়ানের  মধ্য দিয়ে ইজতেমার  আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। গতকাল রাতে বিভিন্ন থানা ও ইউনিয়ন থেকে মুসল্লীরা এসে পুরো ময়দান ভড়ে যান। আজ বাদ মাগরিব ইজতেমার ময়দানে মূল বয়ান করবেন, কাকরাইলের শীর্ষ মুরুব্বী মাওলানা মনির বিন ইউসুফ।

 

বগুড়ায় বিশ্বরোড সংলগ্ন ঝোপগাড়িতে বিশাল এলাকা জুড়ে প্রতিবারের ন্যায় এবারও বিশ্ব ইজতেমাকে কেন্দ্র করে আয়োজক কমিটি ইতিমধ্য তাদের সকল প্রস্তুতি প্রায় সম্পূর্ণ করেছেন।

 

প্রায় ৩লক্ষাধিক মুসল্লীদের জন্য সামিয়ানা, অজু খানা, শৌচাগার সহ প্রয়োজনীয় সকল প্রস্তুতি শেষ পর্যায়ে।থাকছেন মেহমানরা । তিন দিন ব্যাপি ইজতেমায় সৌদি আরব, ইন্দোনেশিয়া, ভারত, জর্ডাণসহ বিভিন্ন দেশ থেকে ধর্মপ্রাণ মুসল্লীরা  এই ইজতেমায় শরীক হয়েছেন।

 

ইজতেমাকে ঘিরে কোন অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে বগুড়া জেলা পুলিশ প্রসাশন ব্যাপক তৎপর রয়েছেন। নিরাপত্তা বলয় তৈরীর পাশাপশি পুরো এলাকা আনা হয়েছে সিসি ক্যামেরার আওতায়। ইজমেতায় বসানো হয়েছে পুলিশ কন্ট্রোল রুম।  একজন অতিঃপুলিশ সুপারের নেতৃত্বে তিনটি টিমে দুইজন করে ইন্সপেক্টরের আওতায় প্রায় ৪শত পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। বগুড়ার পুলিশ সুপার এর তত্বাবধানে পদন্নতি পাওয়া কমপক্ষে একজন পুলিশ সুপার এর সর্বক্ষনিক মনিটরিং এর আওতায় থাকবে গোটা এলাকা । এছাড়া র‌্যাব-১২ বিশেষ কোম্পানীর সদস্যরাও থাকবে সার্বক্ষণিক টহলরত।

 

এছাড়াও সাদা পোষাকে থাকবে পুলিশ বাহিনীর বিশেষ সদস্যরাও। ইজতেমা কমিটির ইন্তেজামী জামাতের সদস্য মোঃ শাহীন হোসেন জানান, ৩ তম এই ইজমেতায় আগত সকল মুসল্লীদের জন্য থাকা ও খাওয়ার সু-ব্যবস্থা করা হয়েছে। নিরাপত্তার দিক দিয়ে আমরা খুবই সন্তুষ্ট। পুলিশ কন্ট্রোল রুম থেকে সার্বক্ষণিক খোঁজ খবর নেয়া হচ্ছে। বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনাচার্জ (ওসি সার্বিক)এস.এম.বদিউজ্জামান জানান, তিন স্তরের নিরাপত্তার আদলে খেয়াল রেখে পর্যাপ্ত  নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। ইজতেমাকে ঘিরে সব ধরণের সহযোগিতা পুলিশের পক্ষ থেকে করা হবে।

 

এদিকে র‌্যাব-১২’র মেজর সাফায়াত আহম্দে সুমন জানান, দেশী-বিদেশী মুসল্লীদের নিরাপদ রাখা ও তাদের নিরাপত্তার জন্য করে আমরা সর্বাত্মক সহযোগিতা করবো। র‌্যাব সদস্যরা টহলরত থাকবে। কাউকে সন্দেহভাজন মনে হলে তাৎক্ষনিক তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

ইজতেমায় ঢাকার কাকরাইল মসজিদ থেকে মাওলানা মুনির বিন ইউছুফ সাহেবের জিম্মাদারিতে মাওলানা ইদ্রিস সাহেব, ভাই রাসেল সাহেব সহ এক জামাত এসেছেন যারা বিভিন্ন সময় গুরুত্বপূর্ণ বয়ান রাখবেন। শনিবার বেলা ১১টায় আখেরী মোনাজাতের মধ্য দিয়ে ইজতেমা শেষ হবে।

 

Facebook Comment





© All rights reserved © 2019 Tablignewsbd.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com
error: Content is protected !!