মঙ্গলবার, ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ১০:১৬ পূর্বাহ্ন

বিশ্ব ইজতেমা শান্তিপূর্ণভাবে করতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাবলীগের মূলধারা স্বারকলিপি প্রধান

বিশ্ব ইজতেমা শান্তিপূর্ণভাবে করতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে তাবলীগের মূলধারা স্বারকলিপি প্রধান

৩০ নভেম্বর থেকে ৪ ডিসেম্বর ৫ দিনের জোড় এবং আগামী ১১ থেকে ১৩ জানুয়ারি ২০১৯ পর্যন্ত ৩ দিনের বিশ্ব ইজতেমা সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন করার জন্য প্রয়োজনীয় সহায়তা চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি স্মারকলিপি প্রদান করেছে দিল্লির নিজামুদ্দিন বিশ্ব মার্কাজের অনুসারী তাবলীগ সাথীরা। বুধবার (১৪ নভেম্বর) দুপুরে পঞ্চগড় জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে এই স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

দিল্লীর নিজামুদ্দিন বিশ্ব মার্কাজ ও বিশ্ব আমির হযরত মাওলানা সাদ সাহেব (দা বা) এর অনুসারী তাবলীগের মূলধারার শুরা এস এম ফয়জুল বারীসহ অন্যান্য সাথীদের কাছ থেকে এই স্মারকলিপি জেলা প্রশাসকের পক্ষ থেকে গ্রহণ করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ গোলাম আযম।

স্মারকলিপিতে বলা হয়েছে, দিল্লীর নিজামুদ্দিন বিশ্ব মার্কাজ ও সংগঠনের বিশ্ব আমির হযরত মাওলানা সাদ সাহেবের (দা বা) সার্বিক তত্ত্বাবধান ও দিক নির্দেশনায় পরিচালিত এই মেহনত সমগ্র বিশ্বে ব্যাপক প্রচার ও প্রসার লাভ করেছে। কিন্তু মূলধারা থেকে বিচ্যুত হওয়া কিছু সংখ্যক সাথী এ মেহনতকে আন্তর্জাতিক ও বিশ্বজনীন মেহনত থেকে স্বদেশী বা স্থানীয় মেহনতে রূপদানের চেষ্টা চালাচ্ছে। তারাই টঙ্গী ময়দানে জোড় ও ইজতেমা করতে বাধা দিচ্ছে। অথচ টঙ্গী ময়দান তাবলীগের কাজের জন্যই বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।
টঙ্গী ময়দানে ৫ দিনের জোড় ও ৩ দিনের বিশ্ব ইজতেমা সফলভাবে সম্পন্ন করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপগুলো বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রীর আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তাবলীগের সাথীরা।

আমাদের লক্ষিপুর প্রতিনিধি জানান, গতকাল বুধবার (১৪ নভেম্বর) বেলা সাড়ে ১২ টায় তাবলীগের পক্ষ থেকে অধ্যক্ষ মোহাম্মদ মজিব উল্যার নেতৃত্বে জেলা প্রশাসক অঞ্জন চন্দ্র পালকে স্বারকলিপি প্রদান করা হয় ।

স্বারকলিপিতে উল্লেখ করা হয় তাবলীগের প্রচার ভারতের দিল্লিস্থ নিজামুদ্দীন বিশ্ব মার্কাজ ও বিশ্ব আমির হজরত মাওলানা সা’দ সাহেব (দা.বা.)-এর সার্বিক তত্ত্ববধান ও দিকনির্দেশনায় পরিচালিত এ মেহনত সমগ্র পৃথিবীতে ব্যাপক প্রচার ও প্রসার লাভ করেছে। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্যি যে , মূলধারা থেকে বিছিন্ন হওয়া কিছু সংখ্যক সাথী এ মোবারক মেহনটিকে আন্তজার্তিক ও বিশ্বজনীন মেহনত থেকে স্বদেশী বা স্থানীয় মেহনতে রুপদানের চেষ্ঠা চালাচ্ছে। তারাই আমাদেরকে টঙ্গী ময়দানে জোড় এবং ইজতিমা করতে বাধা দিচ্ছে। অথচ টঙ্গী ময়দান তাবলীগের কাজের জন্যই বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

তাবলীগের মূলধারার (নিজামুদ্দীন মার্কাজ ) অনুসারী হিসাবে এই জোড় আসছে আগামী ৩০ শে নভেম্বর হইতে ৪ ডিসেম্বর ২০১৮ তারিখ পযন্ত। (১১ থেকে ১৩ জানুয়ারী ২০১৯ তারিখ পর্যন্ত টঙ্গী বিশ্ব ইজতিমা ময়দানে অনুষ্টিত হবে সেজন্য দেশ ব্যাপী জেলা প্রসাশককে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য অনুরোধ করেন মালওয়ালী মসজিদ , কাকরাইল স্বারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়।

স্বারকলিপি প্রদানের সময় উপস্তিত ছিলেন লক্ষ্মীপুর জেলা শাখার তাবলীগ জামাতের অধ্যক্ষ মজিব উল্যাহ, কামরুল আলম চৌধুরী, সৈয়দ জিয়াউল হুদা আফলু, কাজী এমাজ উদ্দিন সুমন, সৈয়দ আহম্মদ পাটওয়ারী,আব্দুল আলীম হুমায়ুনসহ অন্যান্য ওলামায়ে কেরাম ও তাবলীগের হাজারো সাথী উপস্থিত ছিলেন।

একই দাবীতে সারা দেশ থেকে এভাবে জেলা প্রসাশকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্বারকলিপি দেয়ার খবর পাওয়া গেছে।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2019 Tablignewsbd.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com
error: Content is protected !!