বুধবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ০২:২২ অপরাহ্ন

কাকরাইল মূলধারা তাবলীগের সাথীদের পদচারণায় মুখরিত

কাকরাইল মূলধারা তাবলীগের সাথীদের পদচারণায় মুখরিত

বিশেষ প্রতিনিধি, কাকরাইল থেকে | বাংলাদেশ তাবলীগ জামাতের প্রাণকেন্দ্র ঢাকার কাকরাইল মসজিদ মূলধারার তাবলীগ সাথীদের পদচারণায় মুখর। দীর্ঘদিন পর আবার পূর্বের সেই প্রাণবন্ত পরিবেশ ফিরে এসেছে। আবার আগের ন্যায় তাবলীগের সাথীদের পদচারণায় মুখরিত হয়ে উঠছে।

আজ থেকে কাকরাইলে নিয়মিত মূলধারার তাবলীগ সাথীদের আমল শুরু হয়েছে। তাবলীগ জামাত বাংলাদেশের মূলকেন্দ্র কাকরাইল মসজিদ এখন সম্পুর্ণ নিজামুদ্দীন অনুসারী তাবলীগের মূলধারার আহলেশুরাদের নিয়ন্ত্রণেই আছে।

আজ বাদ জুমআ মিনিটে তাবলীগ জামাত বাংলাদেশের মূলধারার সেন্ট্রাল মাশওয়ারা কাকরাইলের মাশওয়ারার কামরায় অনুষ্ঠিত হবে। এ সপ্তাহের ফায়সাল থাকবেন, বর্ষীয়ান আলেমে দ্বীন, কাকরাইলের সবচেয়ে প্রবীণ শুরা হযরত কান শাহাবুদ্দীন নাসিম সাহেব দা.বা।

আজ থেকে পূর্বের ন্যায় শত বছরের তাবলীগের ঐতিহ্য অনুযায়ী দিল্লীর নিজামুদ্দিন মাকার্জের মনোনীত শুরাদের অধীনে কাকরাইল মসজিদের সকল নজম পরিচালিত হচ্ছে। এতে করে মূলধারার তাবলীগের সাথীরা আবার পূর্বের ন্যায় কাকরাইলে জোড়তে শুরু করেছেন। পুরানো সাথীরা আল্লাহর রাস্তায় বের হওয়ার জন্য দলে দলে জামাত নিয়ে কাকরাইল মসজিদে আবার আসছেন। প্রসাশনের সিদ্ধান্তের আলোকে লাগাতার দুই সাপ্তাহ জামুদ্দিনের অনুসারী তাবলীগ শুরাদের অধিনে কাকরাইলের সকল আমল চলবে।

আজ সরেজমিনে গিয়ে নিজামুদ্দিনের অনুসারী তাবলীগের মুরুব্বী ছাড়া শুরাপন্থীদের কাউকে দেখা যায় নি। তাশকিলসহ সকল নজমে চিরচেনা তাবলীগের পুরানো সাথী ও কাকরাইলের জিম্মাদার সাথীদের কাজ করতে দেখা যায়।

এর আগে আলমীশুরার মুরুব্বিদের অধীনে কাকরাইল মসজিদের নজমগুলো চলা অবস্থায় দেখা গেছে, নেই মুসল্লিদের আনাগোনা, বের হতো না তেমন কোন জামাত, মজমাগুলোতে ছিল না পুরানো চিরচেনা সাথী। ঢাকা শহরের বিভিন্ন মাদ্রাসার ছাত্র-উস্তাদ এনে মজমা জুড়ানো চেষ্টা হত। রাত্রিবেলায় তেমন কোন লোকজন থাকতো না। দিনের বেলা অপরিচিত কিছু আলেমদের আনাগোনা লক্ষ্য করা যেত। নজম চালানোর মতো জিম্মাদার সাথী খোঁজে পাওয়া যেত না।

এভাবে কাকরাইলের সকল নজম ঘুরে দেখা যায়, সকল শাখাতেই নিজামুদ্দিন অনুসারী আলেমদের তত্বাবধানেই সকল আমল চলছে। সারাদেশ থেকে বিভিন্ন নজমের জন্য শতাধিক আলেম কাকরাইলের এসেছেন। তারা খুব আন্তরিকতার সাথে কাকরাইলে কাজ করছেন। এছাড়া নিজামুদ্দিন অনুসারী কাকরাইলের পুরানো সাথী, ঢাকা শহরের জিম্মাদার সাথীগণ ছাড়াও নিয়মিত কাকরাইলের আহলে শুরা ও মুকিমিন উলামায়ে কেরামের জামাত কাজ করছে।

এবিষয়ে কাকরাইল মসজিদের অস্থায়ী ইমাম মুফতী আজিমুদ্দীন তাবলীগ নিউজবিডি কে জানান, তাবলীগের কাজ সব সময়ই আলেমদের তত্বাবধানে চলছে। নিজামুদ্দিন অনুসারী সাথীদের যাবতীয় কাজ আলেমদের নিগারনীতে হচ্ছে। তবে তাবলীগের বাহিরের আলেমরা ময়দানে যে অপপ্রচার চালাচ্ছেন, তা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও বিভ্রান্তিকর। তাবলীগের মূলধারায় এখানেই প্রচুর সময় লাগানেওয়ালা উলামায়ে কেরাম আছেন, যারা দাওয়াতের কাজের জিম্মাদারী নিয়ে চলছেন।

বর্তমানে নিজামুদ্দীনের অধীনে যেসমস্ত মুকিমিন উলামায়ে কেরাম কাকরাইল মসজিদে অবস্থান করছেন, তারা হলেন, কাকরাইল মসজিদের আহলেশুরা বর্ষীয়ান আলেমে দ্বীন মাওলানা মুজ্জামিলুল হক সাহেব দা.বা,কাকরাইল মসজিদের আহলেশুরা বর্ষীয়ান আলেমেদ্বীন মাওলানা মোশাররফ দা.বা, মাওলানা আশ্রাফ আলী সাহেব দা.বা, মাওলানা আব্দুল্লাহ মনসুর কাসেমী সাহেব, কাকরাইল মাদ্রাসার সিনিয়র উস্তাদ মাওলানা মনির বিন ইউসুফ সাহেব, মুফতী ফয়জুর রহমান সাহেব, মাওলানা জিয়া বিন কাসেম সাহেব, মুফতি মিযানুর রহমান সাহেব, মাওলানা মনির বিন শাকিম সাহেব, বারিধারা মাদ্রাসার মুহতামিম কাকরাইলের মুকিম মুফতি আতাউর রহমান সাহেব,মাওলানা সাইফুল্লাহ বিন নূরী সাহেব, মুফতি আসাদুল্লাহ সাহেব, মাওলানা সাইফুল্লাহ সাহেব, মুফতি শামছুদ্দিন সাহেব, মুফতি ফয়সাল হোসাইন সাহেব,মুফতী সাফিউল্লাহ সাহেম, মাওলানা আব্দুল আজিজ সাহেব, মাওলানা আব্দুর রাজ্জাক সাহেব, মাওলানা সিরাজুল ইসলাম সাহেব,মাওলানা আনোয়ার আবদুল্লাহ সাহেব, মুফতি মাসউদুল করিম সাহেব, মাওলানা জাকির হুসাইন সাহেব,মাওলানা নুরুল ইসলাম সাহেব মাওলানা আবুল হাসান সাহেব, মাওলানা মুআজ বিন নুর সাহেব, মাওলানা জাবেদ আহমদ সাহেব, মুফতী মুশতাক সাহেব,সহ শতাধিক উলামায়ে কেরাম।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2019 Tablignewsbd.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com
error: Content is protected !!