রবিবার, ১৪ Jul ২০১৯, ১০:১০ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
দেওবন্দের মুহতামিমকে ভারতের সম্মানা প্রদান

দেওবন্দের মুহতামিমকে ভারতের সম্মানা প্রদান

সিনিয়র প্রতিবেদক তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম

দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান দারুল উলূম দেওবন্দকে ভারতের সভ্যতা, সংস্কৃতি ও একাডেমিক সম্পদ বলে মন্তব্য করেছেন ভারতের আর্মি মেজর জেনারেল সুভাষ শেরন।

তিনি বলেন, দারুল উলূম দেওবন্দ মৌলিক মূল্যবোধে বৈশিষ্ট্যে পূর্ণ সভ্যতা ও সংস্কৃতি মানুষকে শিক্ষা দিচ্ছে। মুসলিম সমাজ তাদের সাহিত্য, সামাজিক প্রতিষ্ঠান ও সামাজিক ব্যবহারে তা প্রয়োগ করছে। দেওবন্দের মাধ্যমে মুসলিম জনগোষ্ঠী সম্মলিতভাবে ভারতেরই এগিয়ে নেওয়ার জন্য কাজ করছে।
শনিবার (২২ জুন) আর্মি মেজর জেনারেল সুবাষ শেরন দারুল উলূম দেওবন্দে আসেন। দেওবন্দ মুহতামিম মুফতি আবুল কাসেম নোমানী তাঁকে স্বাগত জানান। এ সময় তিনি এসব কথা বলেন।

সুবাষ শেরনের সাথে আরও ছিলেন এসেছিলেন কর্নেল কালিদীপ কুমার ও অন্যান্য সামরিক বাহিনীর কর্মকর্তাগণ।

ডেইলি সাহারার সংবাদসূত্রে জানা যায়, দারুল উলূম দেওবন্দের মুহতামিম মুফতি আবুল কাসেম নোমানীকে সেনাবাহিনীর সম্মান সূচক পদক প্রদান করেন আর্মি মেজর জেনারেল সুভাষ শেরন।

সুভাষ শেরন বলেন, দারুল উলূম দেওবন্দে একটা ধর্মীয় মাদরাসা, যার শিক্ষা-দীক্ষা ও আন্দোলন কর্মসূচি বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে। তিনি বলেন, দেওবন্দ মাদরাসা ভারতের সম্পদ। ভারতের সভ্যতা, সংস্কৃতি ও একাডেমিক সম্পদ।

মুফতি আবুল কাসেম নোমানী সুভাষ শেরন ও তার সঙ্গীদের সাথে দারুল উলূম দেওবন্দ কী ও কেন? দেওবন্দ কী চায়, দেওবন্দের লক্ষ্য-উদ্দেশ্য কী? ভারতের জন্য দেওবন্দ কি করতে চায়। ইলমে দ্বীন ও ইসলামের প্রচার ও বিকাশে দারুল উলূম দেওবন্দের অবদান বিশ্বের দরবারে কতটুকু, এসব নিয়ে বিস্তারিত আলাচনা তুলে ধরেন।

দারুল উলূম দেওবন্দ পরিদর্শন করে সুভাষ শেরন জানান, দেওবন্দ মাদরাসা আমাদের হৃদয় জয় করে নিয়েছে। দেওবন্দের আতিথেয়তায় আমরা মুগ্ধ। আমরা দেওবন্দ ও দেওবন্দের শিক্ষকদের কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি।

সূত্র : ডেইলি সাহারা, হামারা সমাজ, ডেইলি সাফাহাত

Facebook Comment





© All rights reserved © 2019 Tablignewsbd.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com
error: Content is protected !!