সোমবার, ০২ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৩:৪০ অপরাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম ::
একটি হৃদয়গ্রাহী মোনাজাত

একটি হৃদয়গ্রাহী মোনাজাত

হে আল্লাহ, তুমি কত বুঝিয়েছো কিন্তু আমরা কেউ বুঝিনি, তুমি বাঁধা দিয়েছ কিন্তু আমরা কেউ থামিনি।
.হে আমার মালিক ! মাসুম বাচ্চারা যেমন অভিমান করে বাপ মা ছেড়ে দূরে যেয়ে ছন্ন ছাড়া হয়ে ঘুড়ে বেড়ায় আমাদের অবস্থাও তোমার থেকে দূরে যেয়ে এমনই হয়ে গেছে যে আমরা ছন্নছাড়া হয়ে গেছি।
.
হে মোর মালিক, সামনে কোন রাস্তাও দেখতে পাইনা, কোন উপায়ও চোখে আসেনা। তোমার পবিত্র ঘরে একত্রিত হয়ে, তোমার সামনেই তো হাত পাতি, ভিক্ষার ঝুলি ফেলি যে তুমি আমাদের হয়ে যাও।
.
আমাদের হৃদয় এটার যোগ্য না যে তোমার ভালোবাসা লাভ করবে, কিন্তু আল্লাহ তুমি তো যোগ্য, তোমার রহমত তো যোগ্য যে আমাদের গন্ধ হৃদয়কে তুমি ধুয়ে দাও, পরিষ্কার করে দাও আর একে তোমার রহমত লাভের ব্যাপারে কবুল করে নাও, যোগ্য করে দাও।
.
আমার মালিক ! ভালো হওয়ার চেষ্টা করতে করতে ধুকে গেছি। হে মওলা, অনেক চেষ্টা করেছি কিন্তু যেভাবে তুমি পছন্দ করো সেভাবে নিজেকে গড়ে তুলতে পারিনি।
.
হে আমার মালিক ! আমাদের ব্যাপারে তো জানোই আমরা তোমার নবীর যামানার কত পরে এসেছি। সেই যামানার লোকেরা তো চারপাশে কত পূন্যের, তাকওয়ার পরিবেশের মাঝে থাকত, কিন্তু আমাদের দিকে একবার চেয়ে তো দেখ পুরো দুনিয়াতে কি চলছে , কত রকম নিত্য নতুন গুনাহ প্রতিনিয়ত সংঘটিত হচ্ছে।
.
হে আল্লাহ, এক কদম তোমার দিকে চলি তো দশ কদম উলটো দিকে আসি। সকালে তওবা করি সন্ধ্যায় আবার গুনাহ করি, সন্ধ্যায় তওবা করি সকালে আবার গুনাহ করি। কিন্তু তোমার রহমতের, ক্ষমাশীলতার উচ্চতার সামনে আমাদের গুনাহ এর উচ্চতাই বা কতটুকু ?
.
হে মালিক ! কেয়ামতের দিনে যখন প্রথম দিক কার লোকেরা আসবে, ওদের কাছে তো বড় তাকওয়া থাকবে, বড় বড় আমল থাকবে, তারপর যখন আমরা এই যামানার লোকেরা আসব, আমরা তো ইয়া আল্লাহ একদম খালি হাত হবে, আমাদের ঝুলিও তো ফাঁকা থাকবে। কোথাও লুকানোরও তো জায়গা থাকবেনা যে চুপ করে লুকিয়ে পড়ব।
.
হে মোদের রব ! আমাদের সম্বল বলতে তো কেবল তোমার রহমত আর তোমার হাবীবের ভবিষ্যদ্বানী। তিনি বলেছিলেন, “ওরাই তো আমার ভাই যারা আমাকে না দেখেই বিশ্বাস করবে, আমার উপর ঈমান আনবে”
হে মালিক, আমরা তো দেখিনি উনাকে, আমরা কোরআন নাযিল হওয়াও দেখিনি। আমরা তো এই যামানায় চারিদিকে শুধু দেখে চলেছি নোংরা নোংরা নগ্ন সংস্কৃতি আর শুনে চলেছি গুনাহর আওয়াজ।
.
হে আল্লাহ ! তোমার হাবীব তো আমাদের জন্য দুয়া করে গেছেন। তুমি তো তাকে কথা দিয়েছিলে যে তাকে তুমি তাঁর উম্মতদের ব্যাপারে তাকে খুশী করে দিবা। আমরা তার উম্মতও আর তিনি আমাদের তাঁর ভাইও বলেছেন।
.
হে আল্লাহ কিছুই নাই আমাদের কাছে, আমাদের নবী অনেক কষ্ট করে গেছেন তোমার দ্বীনের পথে, সে উছিলায় হলেও তুমি আমাদের কে ক্ষমা করে দাও।
.
হে মা এর থেকে বেশি ভালোবাসা স্থাপনকারী, বাপের থেকে বেশি যত্নকারী ! আমাদের কাছে জান্নাতে যাবার মত একটা আমলও নাই, শুধু তোমার রহমত আর তোমার হাবীবের শাফায়াত আছে ।এই দুইটা ছাড়া আমাদের কাছে আর কিছুই নাই।
আমরা ফকির, আমাদের বিবিরা ফকির, আমাদের বাচ্চারা ফকির। আমাদের আরব অনারব, কালো ফর্সা, ধনী গরীব সবাই ফকির তোমার রহমত ছাড়া।
.
হে আমাদের রব, আজকেই ফায়সালা করে দাও। আমাদের সকল গুনাহ মাফ না করিয়ে উঠবনা আমি।
তোমার জান্নাত তো এত বড়! কোন কোনা কাঞ্চিতে করুনা করে একটু জায়গা করে দিলে তো কেউ জানতেও পারবেনা যে আমার মত গুনাহগার সেখানে স্থান পেয়েছে ।
ওহ আল্লাহ, তোমাকে চ্যালেঞ্জ করার মত কে বা আছে ? তোমাকে প্রশ্নকারীই বা কে আছে তুমি আমাদের ক্ষমা করে দিলে ?
.
হে মুহম্মদ (সাঃ) এর রব, হে মূসা কালিমুল্লাহ এর রব, হে ইব্রাহীম খালিল এর রব, হে ঈসায়ী রুহু কে রব, হে অনাথদের রব, আমাদের কারোর না কারোর অশ্রু, কারোর দুয়ার হাত তো পছন্দ করে আমাদের সবার দুয়া কবুল করে নাও।
আমাদের তো তুমিই আছো, আর সেই যামানার সবারও তো তুমি ছিলাই আর এমনিতেও তারা ছিলো অনেক বড় মুত্তাকী, কিন্তু আমাদের তো শুধুই তুমি আছো।
আমীন।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2019 Tablignewsbd.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com
error: Content is protected !!