মঙ্গলবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০১৯, ০৯:৫২ পূর্বাহ্ন

টঙ্গীতে জুবায়েরপন্থীদের বর্বরতার নির্মম যত ট্র্যাজিডি (ভিডিও সহ)

টঙ্গীতে জুবায়েরপন্থীদের বর্বরতার নির্মম যত ট্র্যাজিডি (ভিডিও সহ)

#টঙ্গী_ট্র্যাজেডি-র আগে নজিরবিহীন ভাবে নিযামুদ্দিনপন্থীদের প্রতি হুমকি ধামকি প্রদান

তাবলীগের নাহাজে কোনদিনও হুমকি ধামকি না থাকলেও এসময় বিভিন্ন ফেসবুক পোস্টে, লাইভে, নিজেদের পারস্পরিক আলোচনায় প্রচুর হুমকি ধামকি চলতে থাকে। যেমন

 

1. ২৪ নভেম্বর ২০১৮ Abul Kalam Toiyebi ফেসবুক আইডি থেকে নিযামুদ্দিনপন্থীদের হুমকি দেয়া হয় যে ময়দানে গেলে কুরবানী করে ফেলা হবে। http://bit.ly/30ERdaK [13] [৭:৪৩-৮:০৮]

 

2. Eliyas Ahmed আইডি থেকে ২৫ নভেম্বর ২০১৮ সাদপন্থীদের আস্তানা ভেঙ্গে দাও উড়িয়ে দাও শ্লোগানে ময়দান দখল করতে যাওয়ার কথা স্বীকার করা হয়। http://bit.ly/30ERdaK [13] [৮:০৯-৮:২৯]

 

3. আগের পোস্টে স্বীকার করা হয় দৈনিক ১৫ হাজার কওমী ছাত্র জনতা ময়দান ‘পাহারা’ দিচ্ছেন। এবং এই পোস্ট ‘দখল’ কথাটিই ব্যবহার করা হয়। একবার ‘দখল’ এবং দুইবার ‘পাহারা’ কথা লেখা হয়েছে। যদি কেউ দাবি করেন যে, এটা ভুলক্রমে চলে এসেছে; তাহলেও নিশ্চিত যে, তাদের মন মেজাজ মগজে ‘দখল’ এবং ‘দখল বজায় রাখতে পাহারা’ এ কথাগুলো এভাবে গেঁথে গিয়েছিল যে অবচেতন মনেই এসব কথা উঠে আসছিল। আরো পরের দিকে আমরা গাজীপুরের দুই আলেমের স্বীকারোক্তি দেখব যে, শূরাপন্থীদের মাঝে এই আওয়াজই চলছিল।

 

4. Muhammadullah Faruk আইডি থেকে ২৮ নভেম্বর ২০১৮ হুমকি দেয়া হয় নিযামুদ্দিনপন্থীরা ময়দানে ঢুকার চেষ্টা করলে তাদের কপালে শনি আছে। http://bit.ly/30ERdaK [13] [৮:৩০-৮:৪৩] এবং প্রতি পয়েন্টে ৮/১০ হাজার ‘পাহারা’র কথা স্বীকার করা হয়।

 

5. ২৯ নভেম্বর দুই মাদ্রাসা ফারেগ ব্যক্তির ফোনালাপে অত্যন্ত নোংরা ভাষায় নিযামুদ্দিনপন্থীদের হুমকি দেন। লিঙ্কঃ http://bit.ly/2P1JTEL [24] অনেক শূরাপন্থী উলামায়ে কেরামও তাঁদের এই অশ্রাব্য, অকথ্য নোংরা ভাষা ব্যবহারে আশ্চার্য হন যে- সাধারণ রুচিশীল মানুষও এসব কথা শোনাও পছন্দ করেন না; সেখানে মাদ্রাসা ফারেগ লোকদের সাধারণ কথাবার্তায় এসব ভাষা আসে কিভাবে?

 

6. ৩০ নভেম্বর ‘তাজকিয়া’ নামক জনপ্রিয় এক শূরাপন্থী পেজে যুদ্ধংদেহী মনোভাবে লেখা হয়, “শির দেগা, নাহি দেগা আমামা” http://bit.ly/2knFzRY [28]

 

7. কেউ কেউ অত্যন্ত অহংকার এবং মাত্রাতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসের সাথে নিযামুদ্দিন অনুসারীদের ময়দানে আহবান করেন যে, “তোমরা আস, আমরা তোমাদের ইস্তেকবালে দাঁড়িয়ে আছি।” http://bit.ly/30ERdaK [13] [৯:৩৭-৯:৫৯] অর্থাৎ তারা নিশ্চিত ছিলেন এবং পর্যাপ্ত আত্মবিশ্বাসী ছিলেন যে, নিযামুদ্দিন অনুসারীদের ঠেকানোর পর্যাপ্ত ব্যবস্থাপনা ও ‘তদবির’ তারা গ্রহণ করে ফেলেছেন।

 

8. তাদের নিজেদের আলাপচারিতায়ও হুমকিমূলক মনোভাব ফুটে উঠে। তারা ওয়াসিফ ভাইকে উদ্দেশ্য করে বলে, ময়দানে আসলে দাফন করে দিবে। লিঙ্কঃ http://bit.ly/2kOFTcr [23]

 

9. ‘তাবলীগের ব্রেকিং সংবাদ’ ফেসবুক আইডি থেকে স্বীকার করা হয়, শরীরের রক্ত দিয়ে হলেও তাঁরা সাদপন্থীদের মাঠে প্রবেশ করতে দিবেন না। তার ভাষায় এটা জিহাদের মাঠ। লিঙ্কঃ http://bit.ly/2P1JTEL [6]

 

10.  ‘ভূত তাড়ানোর তদবির’, ‘কপালে শনি’ ইত্যাদি তান্ত্রিক যুগের ‘মওযু’র বদলে একজন এ্যালোপ্যাথিক যুগের ‘মওযু’ উদ্ভাবন করেন। Musarraf Hossain ফেসবুক আইডি থেকে কমেন্ট করা হয়, তারা সা’দগ্রুপের অপেক্ষায় আছেন যে, আসা মাত্র পিটানি দিয়ে হাড্ডি গুড্ডি চুরমার করে দেয়া হবে। তাই প্রত্যেকের সাথে একজন করে ‘অর্থপেডিকস’ ডাক্তার নিয়ে আসার পরামর্শ দেন। লিঙ্কঃ http://bit.ly/2kU18JX [29]

 

বিঃদ্রঃ গুগল ড্রাইভের প্লে ব্যাক লিমিটের কারণে কখনো কখনো ভিডিও প্লে করতে সমস্যা হতে পারে। সে ক্ষেত্রে ডাউনলোড করে নিন। আল ইমানের সৌজন্যে

Facebook Comment





© All rights reserved © 2019 Tablignewsbd.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com
error: Content is protected !!