সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:৩১ পূর্বাহ্ন

তাবলীগের কিংবদন্তির সান্নিধ্যে একবেলা…

তাবলীগের কিংবদন্তির সান্নিধ্যে একবেলা…

সৈয়দ আনোয়ার আবদুল্লা,তাবলীগ নিউজ বিডিডটকম |মাওলানা মুজ্জাম্মিলুল হক দামাত বারাকাতুহুম। কাকরাইলের আহলে শুরা। তাবলীগের সবচেয়ে প্রবীণ মুরুব্বী। এর বাহিরে নিভৃতচারী প্রচারবিমূখ মুখলেছ এই মহান বুজুর্গ মনীষা সাম্পর্কে আমরা কতটুকো জানি?

তাবলীগের মেহনত ছাড়াও এলেম এবং তাসউফের লাইনে বর্তমান সময়ে তাকে একজন জীবন্ত কিংবদন্তি বলা চলে। যেই মানীষার দ্বারা আল্লাহ আরব বিশ্বে প্রথম দাওয়াতের মহান মকবুল কাজ নিয়েছেন। আরবে প্রথম জামাত নিয়ে যাবার এবং আরবদেরকে আল্লাহর রাস্তায় যিনি প্রথম বের করার সৌভাগ্য অর্জন করেছেন।

আজ বাদ ফজর কাকরাইল মসজিদে হযরতের সাথে কিছু সময় কাটানোর সুযোগ হয়। সকালের নাস্তা খেতে খেতে জেনে নেই হযরতের বর্ণাঢ্য, বর্ণিল, বিস্তৃত জীবনের টুকিটাকি। সাথে ছিলেন হযরতের বড় ছাহেবজাদা কাকরাইল মসজিদের সম্মানীত ইমাম হাফেজ মাওলানা ক্বারী আনাস বিন মুজ্জাম্মিল দা.বা, মুফতী আজিমুদ্দীন, হাফেজ মাওলানা উসামা।

তিনি বাংলাদেশে তাবলীগ জামাতের জীবন্ত একমাত্র মনীষী যিনি ২য় হযরতজী মাওলানা মোহাম্মদ ইউসুফ কান্ধলভী রহ এর স্নেহচার্য লাভ করেছেন। কাছে থেকে শিখেছেন এই কাজের নেহাজ, তরতীব, উসুল, মেজাজ ও ত্বরীকা।

৩য় হযরতজী মাওলানা এনামুল হাসান রহ এর বানানো বাংলাদেশ তাবলীগ জামাতের একমাত্র জীবিত আহলে শুরা। একমাত্র তিনি ছাড়া কাকারাইল ও বাংলাদেশ তাবলীগ জামাতের বর্তমান সকল আহলে শুরা এবং ফায়সাল হযরতগন মাওলানা সাদ কান্ধলভী দা.বা এর কতৃক বানানো ।

মাওলানা হারুন বিন ইউসুফ কান্ধলভী রহ (সাদ সাহেবের আব্বা) যার অন্তরঙ্গ বন্ধু ও ঘনিষ্ট সহকর্মী ছিলেন। তাবলীগ জামাতের বর্তমান বিশ্ব আমীর মাওলানা সাদ কান্ধলভীকে শৈশবে নিজামুদ্দিন মার্কাজে খোলেপিঠে করে বড় করেছেন। আজ তাকেই আমীর মেনে জীবনের পড়ন্ত বেলায় এসে এতেয়াতের সাথে দাওয়াত ও তাবলীগের মহান খেদমত আঞ্জাম দিচ্ছেন।

বাংলাদেশ তাবলীগের কেন্দ্রীয় মার্কাজ কাকরাইল মসজিদের প্রতিষ্ঠাতাদের অন্যতম তিনি। কাকরাইলের প্রতিষ্ঠাতা মুরিব্বীদের মাঝে তিনিই কেবল আল্লাহর ফজলে জীবিত থেকে দাওয়াতের কাজের রাহবারী করছেন আজো।

হাটহাজারী মাদরাসার সদরুল মুদাররিসিন, ফকীহুল মিল্লাত, মুফতীয়ে আজম মুফতী ফয়জুল্লাহ রহ এর অন্যতম খলিফা তিনি। উপমহাদেশের বিখ্যাত আলেম মাওলানা ইদ্রিস কান্ধলভী রহ এর ‘খাদেমে খাছ’ ছিলেন। পাকিস্তানের মুফতী শফি ছাহেব রহ এর আজীজ ত্বোলাবাদের একজন যিনি। হাটহাজারী মাদরাসার মহান প্রতিষ্ঠাতা মাওলানা হামেদ সাহেব রহ ও মাওলানা আব্দুল ওয়াহাব রহ এর শিষ্যদের মধ্যে তিনি অন্যতম।

তাবলীগের মহান বুজুর্গ মনীষা এবং মদীনা মুনাওয়ারার প্রথম অামীর মাওলানা সাঈদ অাহমাদ খান রহ, মাওলানা উমর পালনপুরী রহ, মাওলানা উবাইদুল্লাহ বলয়াভী রহ ও ভাই হাজী আব্দুল ওয়াহাব রহ এর সাথে সারা দুনিয়াতে সফর করেছেন।

তিনি একদা এক খাছ মজলিসে বলেছিলেন, “আমি ইবনে বতুতার (দুনিয়া বিখ্যাত পরিভ্রাজক) সফরনামা পড়েছি। আল্লাহ আমাকে দাওয়াত ও তাবলীগের ওসিলায় এর চেয়ে বেশি দেশ ও সারা দুনিয়াতে সফর করিয়েছেন।”

সাত সন্তানের জনক সবাই হাফেজ। ৫জন মাওলানা। দুইজন অধ্যয়নরত। গোটা পরিবারে আলেমের সংখ্যা ৬শ জন। হযরতের বড় ভাই মাওলানা কবির আহমদ আশরাফী ছিলেন হাকিমুল উম্মত থানভী রহ এর খলিফা। গোটা বাংলাদেশে এরকম আলেমদের শানদার পরিবার হাতে গোনা কয়েকটি।

প্রিয় পাঠক,
মাওলানা মুজ্জাম্মিলুল হক দা.বা সম্পর্কে লিখতে গেলে কয়েকমাস লিখা যাবে। ইনশাল্লাহ আগামী কাল তাবলীগ নিউজ বিডিডটকমের পাঠকদের জন্য হযরতের আরো বিস্তারিত জীবনী তুলে ধরা হবে ইনশাআল্লাহ।
সে পর্যন্ত সাথে থাকুন।

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com