রবিবার, ০৯ মে ২০২১, ০৩:৫৯ পূর্বাহ্ন

আসুন জাতীয়ভাবে তওবা করি…

আসুন নিজেদের জুলুমের জন্য জাতীয়ভাবে তওবা করি

সৈয়দ আনোয়ার আবদুল্লাহ

দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে, আলেম উলামাদের আজকের করোণ দশায় আমাদের টপ টু বাটম সকলে জাতীয়ভাবে তওবা করা উচিত। আমরা কেবল অন্যকে জালেম বলতেই সাচ্ছন্দ্যবোধ করি। কখনো এটি ভাবিনা, আমাদের আচরণের দ্বারা, আমলের দ্বারা, কাজের দ্বারা, মুখ ও জবানের দ্বারা আমরাও বিগত দিনে এমন কিছু কাজ করেছি যার ফলে জালেমের কাতারে আমাদেরও নাম আছে।
আজ আমাকে অনেক বড় এক সাহেবে নিসবত বুজুর্গ আলেম বললেন “এদেশের আলেমরা নিজেদের জুলুমকে স্বীকার করে, অনুতপ্তের সাথে তওবা না করা পর্যন্ত আল্লাহ জামানার জুলুম থেকে আলেমদের হেফাজত করবেন না।”
“আমার উপর একজন আলেম হিসাবে উম্মতের যে আমানত ছিল, হক ছিল, আমি তা আদায় করতে পারি নি। এই দ্বীনের জন্য জানমালের যে বাজি লাগানোর কথা ছিল, কুরবানী আর আত্বত্যাগের ওয়াদা ছিল, তা না করে নিজের খাহেশাতের পেছনে সময় ব্যায় করেছি। দ্বীনের নামে , উম্মতের জান ও মালের খেয়ানত করেছি।
এই উম্মতের ঐক্য ও আমানতের হেফাজত করতে আমরা ব্যার্থ হয়েছি। আমারা দলীয় আচরণ ও আসাবিয়াতের সংকীর্ণতা, চিন্তার দৈন্যতার কারণে এই উম্মতকে টুকরো টুকরো করেছি কেবল। নিজেদের আনুগ্যতের ফরজিয়তকে উগ্রতার দাবানলে তছনছ করে দিয়েছি। বড় আর সম্মানীতদের সাথে পশু সূলভ আচরণ করে নিজেদেরকে ধ্বংস করে দিয়েছি।
মসজিদ, মাদরাসা আর দ্বীনী আন্দোলনের মহান আমানত আর হক আদায় না করে উল্টো সেচ্চাচারিতার দ্বারা এসবকে জুলুমগাহে পরিণত করেছি। নিজেরা রাজনীতির নামে দলে উপদলে বিভক্ত হয়ে টুকরো টুকরো হয়েছি। সীরাত আর সুন্নত বহিভূত আন্দোলন সংগ্রাম আর হিংস্রতা আমাদেরকে কেথায় নিয়ে গেছে আসুন একটু অনুতপ্ত হই।
নিজেকে একমাত্র হক আর সকলকে বাতিল স্বাবস্থ্য করে, অযাচিত ফতোয়াবাজির তলোয়ারে সাধারণ মানুষের দীলকে টুকরো টুকরো করেছি। মুসলিম ভাইদেরকে দাওয়াতে ইলাল্লাহ আর ইসলামের সৌন্দর্য্য তুলে না ধরে ই্ছো অনিচ্ছা আবেগ বশবতি হয়ে কথায় কথায় নাস্তিক মুরতাদ, গোমরাহ বলে বলে দ্বীন থেকে তাড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করেছি। জান্নাত ও জাহান্নামের ঠিকাদারী নিজের হাতে নিয়ে সবচেয়ে বড় জুলুম করেছি।
আর নিজেদের ভিতর আর বাহিরে দৈথ্য নীতি অবলম্বন করে চারিত্রিক অধঃপতনে তলিয়ে গেছি। মিথ্যা, অপবাদ, হিংসা, গালাগালি, মারমূখি আচরণ, পরস্পরে ভাই হয়ে চলার বিপরীতে কাঁদা ছুড়াছুড়ি করে উগ্রতার সয়লাব ঘটিয়ে চারদিকের বাতাসকে অপবিত্র করে তুলেছি। সবকিছু দেখে ও বুঝে আমরা ক্রমাগত এসব অন্যায়ের প্রতিবাদ না করে জালেম হয়েছি!”
আল্লাহ আমাদের ঢেকে রাখা অজস্র গোপন গুনাহকেও যদি ক্রমাগত এসব জুলুমের কারণে এখন উম্মতের সামনে প্রকাশ করে দেন, তাহলে আমাদের ইজ্জত,মান, সম্মান আর কিছুই বাকি থাকবে না। আখেরাতে শাস্তির পাশাপাশি দুনিয়াতেও অপমান জিল্লতি আর লাঞ্চনার শেষ থাকবে না। এর আগে তওবা করে নেয়া দরকার। ফেরকাবাজী আর দলান্ধতা ছেড়ে উম্মাহর ঐক্য সুসংগঠিত করে ভাই ভাই হয়ে সকল উম্মতকে বুকে আগলে নেয়া দরকার। চোখের পানি ফেলে রমজানের এই পবিত্র সময়ে আল্লাহর দরবারে রোনাজারী আর তওবা করে তাঁর সাহায্য চাওয়া দরকার।
এটি ভাবতে, বলতে, বা স্বীকার করতো হয়তো আমাদের কারো কারো কষ্ট হবে। কিন্তু আমি বিশ্বাস করি সত্যকারের ওরাসাতুল আম্বিয়া যারা তারা নিজেদেরকে বিগত দিনের এসব বদ আমলের কারণে জালেম হিসাবে স্বীকৃতি দিয়ে অনুসুচনায় দগ্ধিত হয়ে একবার নয় বারবার আল্লাহর শাহী দরবারে তওবা করতে কোন কার্পন্য করবেন না।
আমি আপনি কোন গাছের মূলা হয়ে গেলাম, যে নিজেকে এতো পুত-পবিত্র ভেবে নিশ্চিত হয়ে বসে আছি। যেখানে উম্মতের প্রথম রাহবার হযরত আবুবকর সিদ্দীক রাযি. দু’আতে নিজেকে বারবার জালেম বলে সম্বোধন করে তওবা করতেন। “যে আমি আমার নিজের উপর জুলুম করেছি।”
আল্লাহ পাক আমাদের শিখিয়েছেন নামাজে তার সামনে দাড়ালেই নিজেকে জালিম বলে বারবার সম্বোধন করে মাফ চেয়ে তাঁর অনুগ্রহ হাসিল করা। কিন্তু নামাজে দাড়িয়ে আমরা ঠিকই বলি, “আমি আমার নিজ আত্মার উপর বড়ই জুলুম করেছি” অথচ নামাজ পরেই ভুলে যাই এইমাত্র আমি জালিম হিসাবে যে আল্লাহর নিকট স্বীকার করে মাফ চাইলাম।আবার আরেক ওয়াক্ত নামাজ আসার আগ পর্যন্ত আর মনে থাকে না।
কিন্তু নামাজের বাহিরে কখনো আমাদের সামগ্রিক আচরণের দ্বারা নিজেদের মধ্য এমন বিষয় ফুটে উঠেনা যে আমি নিজের উপর জুলুম করেছি। আমিও একজন জালেম! এজন্য অনুতপ্ত হওয়া, অনুসুচনা করা, তওবা করা হয়ে উঠে না বরং আমার কথা আচরণে, লেখায় আমি অন্যকে জালেম বলতেই সিদ্ধ হস্ত।
অথচ, নবী আলাইহিস সালাম-গন আল্লাহর নির্বাচিত ও মনোনীত মাসুম বান্দা, তাদের দায়িত্ব যথাযথ আদায় করার পরেও একটুখানি সমস্যা হলেই বারবার নিজেকে জালেম বলে ফরিয়াদ করতেন। আল্লাহ কুরআনে আমাদের এটিই শিখিয়েছেন বারবার। নিজেদের ভুলের জন্য তওবা করা, নিজেকে জালেম বলে মাফি চাওয়া।
আল্লাহ কুরআনে পাকে মুসা আলাইহিস সালামের ঘটনা বর্ণনা করে আমাদের দু’আ শিখিয়েছেন, “মুসা আলাইহিস সালাম নবী হয়েও আল্লাহর কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করেন এবং কোনো অন্যায়কারীকে সহযোগিতা না করার প্রতিজ্ঞা করেন-
قَالَ رَبِّ إِنِّي ظَلَمْتُ نَفْسِي فَاغْفِرْ لِي فَغَفَرَ لَهُ إِنَّهُ هُوَ الْغَفُورُ الرَّحِيمُ -قَالَ رَبِّ بِمَا أَنْعَمْتَ عَلَيَّ فَلَنْ أَكُونَ ظَهِيرًا لِّلْمُجْرِمِينَ
অর্থ : ‘হে আমার পালনকর্তা, আমি তো নিজের উপর জুলুম করে ফেলেছি। অতএব, আমাকে ক্ষমা করুন। আল্লাহ তাকে ক্ষমা করলেন। নিশ্চয় তিনি ক্ষমাশীল, দয়ালু। হে আমার পালনকর্তা, আপনি আমার প্রতি যে অনুগ্রহ করেছেন, এরপর আমি কখনও অপরাধীদের সাহায্যকারী হবো না।” (সুরা ক্বাছাছ ১৫-১৬)
হযরত ইউনুস আলাইহিস সালাম যখন বিপদে পড়ন তখন তিনি মহান আল্লাহর কাছে যে দু’আ পড়েন আর সে দু’আর বরকতে আল্লাহ তাকে মহাবিপদ থেকে উদ্ধার করেছিলেন, সেখানেও নবী হয়ে তিনি বলেছিলেন “নিশ্চয় আমি জালিমদের দলভুক্ত” আর তাহলো-
لَا إِلَـٰهَ إِلَّا أَنتَ سُبْحَانَكَ إِنِّي كُنتُ مِنَ الظَّالِمِينَ
অর্থ : ‘তুমি ব্যতীত সত্য কোনো উপাস্য নেই; তুমি পুতঃপবিত্র, নিশ্চয় আমি জালিমদের দলভুক্ত।’ (সুরা আম্বিয়া ৭৮)
প্রত্যেক নামজে সালাম ফেরানোর আগে আমরা নিচের দু’আটি বলি,
اللّٰهُمَّ إِنِّيْ ظَلَمْتُ نَفْسِيْ ظُلْمْاً كَثِيْراً، وَلاَ يَغْفِرُ الذُّنُوْبَ إِلاَّ أَنْتَ، فَاغْفِرْ لِيْ مَغْفِرَةً مِنْ عِنْدِكَ وَارْحَمْنِي، إِنَّكَ أَنْتَ الغَفُوْرُ الرَّحِيْمُ
অর্থঃ হে আল্লাহ্‌! আমি আমার নিজ আত্মার উপর বড়ই জুলুম করেছি, গুনাহ মাফকারী একমাত্র তুমিই; অতএব তুমি আপনা হতে আমাকে সম্পূর্ণ ক্ষমা কর এবং আমার প্রতি দয়া কর। তুমি নিশ্চয়ই ক্ষমাশীল দয়ালু। (বুখারী মুসলিম ১১/১১৪৭৫)
মহান আল্লাহ শিক্ষা দিয়েছেন-
رَبَّنَا لَا تَجْعَلْنَا مَعَ الْقَوْمِ الظَّالِمِينَ
অর্থ : ‘হে আমাদের প্রতিপালক! আমাদেরকে জালেম সম্প্রদায়ের সঙ্গী বানিও না।’ (সুরা আরাফ : আয়াত ৪৭)
ব্যাক্তগত ও সমষ্টিগত আমি, আপনি সবাই তওবা করা দরকার নিজের কমতকর্মের জন্য। সবকিছু একাত্র আল্লাহর হাতে। আল্লাহ চাইলে মুহূর্তে হালত বদলে দিতে পারেন।
এতএব আসুন, বিগত দিনগুলোতে বুঝে না বুঝে, নেটের ধোকায় পরে, শয়তানের ফাঁদে পরে, ইচ্চায় -অনিচ্ছায় যত জুলুম করেছি, নিজের উপর, উম্মতের উপর, সকল জুলুমের জন্য আল্লাহর মহান দরবারে তওবা করি। দয়াময়, বুঝ দাও! তাওফিক দাও। কবুল করে নাও। আমীন।
Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com