বৃহস্পতিবার, ০৮ এপ্রিল ২০২১, ০৫:৪৩ পূর্বাহ্ন

এক পর্বে বিশ্ব ইজতেমায় একমত নন মূলধারার মুরুব্বীরা

এক পর্বে বিশ্ব ইজতেমায় একমত নন মূলধারার মুরুব্বীরা

ষ্টাফ রিপোর্টার,  তাবলীগ নিউজ  বিডিডটকম |

আসন্ন বিশ্ব ইজতেমার প্রস্তুতি বিষয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে গুরুত্বপূর্ণ কয়েকটি বিষয়ে সিদ্ধান্ত এসেছে, তবে আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারী তাবলীগের বিবাদমান দুপক্ষের একপর্বে একত্রে সম্মিলিত বিশ্ব ইজতেমার ব্যাপারে একমত হননি তাবলীগের মূলধারা নিজামুদ্দিন অনুসারী মুরুব্বীরা।

বৈঠক অংশগ্রহণ শেষে তাবলীগ নিউজ বিডিডটকমকে এসব তথ্য জানান তাবলীগের শীর্ষ মুরুব্বী মাওলানা আশরাফ আলী।

এদিকে দুপুরে সাংবাদিকদের আসাদুজ্জামান খান কামাল জানান, তাবলিগ জামাতের নেতৃত্বের মধ্যে যে বিরোধ চলে আসছিল সেটার মীমাংসা হয়েছে।  মীমাংসার পর প্রস্তুতিমূলক সভা করতে এতো সময় কেন লাগল সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন,  সারা পৃথিবীতেই তাবলিগ জামাতের মধ্যে এখন দ্বিমত রয়েছে। তার প্রভাব বাংলাদেশেও পড়েছে। এসব বিষয় সমাধানের জন্য ধর্ম প্রতিমন্ত্রী তাবলিগ জামাতের দুপক্ষের দুজন করে চারজন মুরব্বির সমন্বয়ে আলোচনায় বসবেন। এ বৈঠক আজ দুপুরেই সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত হবে।

তাবলীগের মুরুব্বী মাওলানা আশরাফ আলী আরো বলেন,  একত্রে ৬৪জেলা ইজতেমায় এলে জায়গার সংকট হবে আর আর্দশিকভাবে উভয়পক্ষ ঐক্যমতে না পৌছায় সংঘাত – সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে। নিজামুদ্দিন বিশ্ব মারকাজের মুরুব্বীদের একক নিয়ন্ত্রণ ছাড়া বিশ্ব ইজতেমা করলে বিশ্বব্যাপি  তাবলীগের কাজ ক্ষতিগ্রস্ত হবে বলে কাকরাইলের মূলধারার মুরুব্বীরা মনে করেন। আমরা চাচ্ছি আলাদা ইজতেমা করতে, একত্রে তাদের সাথে ইজতেমা করতে আমাদের ৬৪জেলার সাথীরা একমত নন। আশা করি দ্রুত সরকার আমাদের দাবী মেনে নিয়ে ইজতেমার ভিন্ন তারিখ দিবে।তিনি আরো বলেন, গত ১সাপ্তাহে ওদের ঐক্যবিরোধী আচরণে ঐক্য ভেঙ্গে গেছে। আমরা সাংঘর্ষিক ইজতেমা চাই না।

 

সকাল সাড়ে ১১টায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এই বৈঠক শুরু হয়ে জোহরের নামাজের পূর্ব মুহূর্তে তা শেষ হলেও তাবলীগের মুরুব্বীগন একপর্বে বিশ্ব ইজতেমা করার জটিলতা তুলে ধরে বৈঠকে ব্যাপক আপত্তি তুলায় বেলা ২টায় ধর্মপ্রতিমন্ত্রী শেখ আব্দুল্লাহ মূলধারার মুরুব্বীদের সাথে আবার বৈঠকে বসেন। তখন শেখ আব্দুল্লাহ মুরুব্বীদের আশ্বাস দেন  এবিষয়ে দুইএক দিনের ভিতরেই আবার তাবলীগের মুরুব্বীদের নিয়ে বৈঠকে বসবেন।

 

এছাড়া বৈঠক সূত্রে জানা যায়,  মাওলানা জুবায়ের বিদেশে এককভাবে যে চিঠি পাঠিয়ে বিভ্রান্ত তৈরি করেছেন তা তিনি প্রত্যাহার করে নেয়ার সিদ্ধান্ত হয়।  এছাড়া তাবলীগের কাজে বাংলাদেশের কোন মসজিদে কেউ বাঁধা দিলে আইনানুগ ব্যাবস্থা নিবে প্রসাশন।  বিদেশি মেহমানদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়েছে যে, বিশ্ব ইজতেমার ব্যাপারে একমত হলে উভয়পক্ষের যৌথ স্বাক্ষরে যাদের আমন্ত্রণ জানানো হবে কেবল তাদেরকেই ভিসা দেবে সরকার। অন্যদের ভিসা দেওয়া হবে না।

স্বররাষ্ট্রমন্ত্রীর সভাপতিত্বে আজকের বৈঠকে আরও অংশগ্রহণ করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মোঃ আবদুল্লাহ, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, গাজীপুর পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, পুলিশের আইজি, র‌্যাবের ডিজিসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

 

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, কাকরাইলের আহলে শুরা সৈয়দ ওয়াসিফুল ইসলাম,  খান শাহাবুদ্দীন নাসিম, মাওলানা মোশাররফ হোতেন, প্রফেসর ইউনুস শিকদার, মাওলানা জুবায়ের, মাওলানা উমর ফারুক, মাওলানা আশরাফ আলী, মাওলানা আবদুল কুদ্দুস প্রমূখ।

 

Facebook Comment





© All rights reserved © 2020 TabligNewsBD.Com
Design & Developed BY PopularServer.Com